পাতা:মীরকাসিম - অক্ষয়কুমার মৈত্রেয়.pdf/১৩১

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


* 어ft5 Nà Rà. DEuBBBD BtBDOS DDDDB DDSDBD DBDDBBBS BD বাণিজ্য করিতে প্ৰবৃত্ত হইয়াছিলেন। কোম্পানীর যৎসামান্য বেতনে কাহারও অভাব দূর হইবার সম্ভাবনা ছিল না। সুতরাং অভাব মোচনের জন্যও কোম্পানীর কৰ্ম্মচারিগণকে অন্য উপায়ে অর্থে পার্জনের চেষ্টা করিতে হইত। তাহারা ইহার যে উপায় আবিষ্কার করিয়াছিলেন, তাহাতে দেশের লোকের সর্বনাশ ঘটিলে কি হইবে ? আত্মরক্ষার প্রবল তাড়না কোম্পানীর কৰ্ম্মচারিগণকে সে কথা চিন্তা করিবার অবসর দান করিত না । তাহারা বিলাতে পণ্যদ্রব্য প্রেরণ করিয়া বাণিজ্য করিতে পারিতেন না ; তঁাহারা দেশের মধ্যেই জলপথে স্থলপথে বাণিজ্য করিতেন। কোম্পানীর কৰ্ম্মচারিবর্গ কোম্পানীর মোহরাঙ্কিত “দস্তক” নামক অনুমতি-পত্ৰ দেখাইয়া বিনা শুল্কে বাণিজ্য করিতেন । ইহাতে যে কেবল রাজকোয্যের ক্ষতি হইত, তাহা নহে ; দেশের লোকে শুল্ক দান করিয়া বাণিজ্য করিতে গিয়া কোম্পানীর কৰ্ম্মচারিদিগের প্রতিযোগিতায় পরাভূত হইত। গবর্ণর ভ্যান্সিটার্ট এবং সদস্য ওয়ারেণ হেষ্টিংস ভিন্ন ইংরাজমাত্রেই কোম্পানীর কৰ্ম্মচারিদিগের এই উচ্ছঙ্খল বাণিজ্যের পক্ষপাতী ছিলেন। তাহাতে সকলেরই লাভের সংশ্ৰব ছিল। লাভের লোভে কৰ্ত্তব্য বুদ্ধি লুপ্ত হইয়াছিল। বিলাতের কর্তৃপক্ষ বারম্বার নিষেধ করিয়াও কোম্পানীর কৰ্ম্মচারিগণের এই প্ৰবৃত্তি নিরস্ত করিতে পারেন নাই। এই স্বাধীন বাণিজ্যের অত্যাচারে দেশের লোকের হাহাকারে নবাব দরবার পূর্ণ হইয়া উঠিল। মীর কাসিম তাহাতে কৰ্ণপাত না করিলে, বন্ধুবিচ্ছেদ সংঘটিত হইত না । কিন্তু মীর কাসিম যে দেশের শাসন-ভার গ্ৰহণ করিয়া মনুষ্য ও পরমেশ্বরের নিকট কৰ্ত্তব্য পালনের জন্য দায়ী, সে দেশের প্রজাপুঞ্জের হাহাকারে উপেক্ষা প্ৰদৰ্শন করিতে পারিলেন না ! / ইহাতেই বন্ধু-বিচ্ছেদ উপস্থিত হইল ।