পাতা:মীরকাসিম - অক্ষয়কুমার মৈত্রেয়.pdf/১৪৫

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ষোড়শ পরিচ্ছেদ S St. করিয়া দণ্ডায়মান হইল। ১ জুলাই তারিখে পলায়ন-পরায়ণ ইংরাজ সেনা গত্যন্তর না দেখিয়া, সন্মুখযুদ্ধে আত্মরক্ষা করিবার আশায় গঙ্গাতীরে বুহে রচনা করিল। নবাব-সেনার আক্রমণ প্ৰতীক্ষায় কালক্ষয় না করিয়া, আক্রমণ করিবার জন্যই ইংরাজ সেনানায়কগণ আদেশ প্রচার করিলেন । গোরাপল্টন আক্ৰমণ করিবার আদেশ প্ৰাপ্ত হইয়াও, অগ্রসর হইতে সম্মত হইল না ; সিপাহী-সেনা তাহদের দৃষ্টান্তের অনুকরণ করিল। সুতরাং ইংরাজসেনা সম্পূর্ণরূপে পরাভূত হইল। ডাক্তার ফুলারটন ও চারিজন সার্জেণ্ট ব্যতীত সকলেই শক্রিহস্তে বন্দী হইলেন ; অনেকে যুদ্ধক্ষেত্রে প্রাণত্যাগ করিলেন। এইরূপে ইলিশ সাহেবের সামরিক লীলার অবসান হইল । যথাকলে এই সকল দুর্ঘটনার সংবাদ প্ৰাপ্ত হইয়া, মীর কাসিম মুরশিদাবাদে পত্র লিখিয়া আমিয়ট সাহেবের গতিরোধের আদেশ প্রচার করিয়াছিলেন । সৈয়দ মহম্মদ খাঁ তৎকালে মুরশিদাবাদের শাসনকর্তা ছিলেন । তিনি কাসিমবাজারের ইংরাজকুঠি অবরুদ্ধ করিয়া, আমিয়ট সাহেবের নৌকা আটক করিবার সংকল্প করিয়াছিলেন। হে এবং গলষ্টনকে প্ৰতিভূ স্বরূপ মুঙ্গেরে রাখিয়া, আমাক্লেট, ওয়ালষ্টন, হাচিনসন, জোন্স, গর্ডন, কুপার এবং ডাক্তার ক্রুকের সহিত আমিয়ট সাহেব নৌকাপথে কলিকতাভিমুখে গমন করিতেছিলেন। মুরশিদাবাদের নিকটবৰ্ত্তী হইবামাত্র নৌকা আটক হইল। তঁহাদিগকে আটক রাখা ভিন্ন হত্যা করিবার কথা ছিল না। আমিয়ট অসহিষ্ণু হইয়া সিপাহীগণকে বন্দুক ছুড়িতে আদেশ করিলেন। তাহারা বীরবিক্রমে নবাব-সেনার উপর গুলিবৃষ্টি করিতে লাগিল। একজন হাবিলদার এবং দুই এক জন সিপাহী পলায়ন করিয়া পরিত্রাণ লাভ করিল , আর সকলেই প্ৰাণত্যাগ করিলেন ! * আমিয়ট সিপাহী-সেনাকে orthur Y حصہ جمعمہ ۔م۔مص۔ --ع Mr. Amyatt, refusing το land or surrender, directed his