পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (অষ্টম খণ্ড) - সুলভ বিশ্বভারতী.pdf/১০৪

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


রবীন্দ্র-রচনাবলী ধবনিত অমরাবতী আনন্দে রচিয়া দেয় বেদি বীর বিজয়ীর তীরে, যশের পতাকা অত্ৰভেদী মর্তের চুড়ায় উড়ে । মনে আছে একদা যেদিন আসন প্ৰচ্ছন্ন তব, অশ্রদ্ধার অন্ধকারে লীন, ঈর্ষাকণ্টকিত পথে চলেছিলে ব্যথিত চরণে, ক্ষুদ্র শক্রিতার সাথে প্রতিক্ষণে অকারণ রণে হয়েছ পীড়িত শ্ৰান্ত । সে দুঃখই তোমার পাথেয়, সে অগ্নি জ্বেলেছে। যাত্রাদ্দীপ, অবজ্ঞা দিয়েছে শ্রেয়, পেয়েছ সম্বল তব আপনার গভীর অন্তরে । তোমার খ্যাতির শাস্তু আজি বাজে দিকে দিগন্তরে সমুদ্রের এ কুলে ও কুলে ; আপনি দীপ্তিতে আজি বন্ধু, তুমি দীপ্যমান ; উচ্ছসি উঠিছে বাজি বিপুল কীর্তির মন্ত্র তোমার আপনি কর্মমাঝে । জ্যোতিষ্কসভার তলে যেথা তব আসন বিরাজে সেথায় সহস্ৰদীপ জ্বলে আজি দীপালি-উৎসবে ! আমারও একটি দীপ তারি সাথে মিলাইনু যাবে চেয়ে দেখো তার পানে, এ দীপ বন্ধুর হাতে জ্বালা ; তোমার তপস্যাক্ষেত্র ছিল যাবে নিভূত নিরালা, বাধায় বেষ্টিত রুদ্ধ, সেদিন সংশয়সন্ধ্যাকালে কবি-হাতে বরমাল্য সে-বন্ধু পর্যায়েছিল ভালে ; অপেক্ষা করে নি। সে তো জনতার সমর্থন-তরে, দুদিনে জ্বেলেছে দীপ রিক্ত তব অর্ঘ্যথালি-পরে । আজি সহস্রের সাথে ঘোষিল সে, “ধন্য ধন্য তুমি, ধন্য তব বন্ধুজন, ধন্য তব পুণ্য জন্মভূমি ।” শান্তিনিকেতন S 8 V, 33ge S \ovod