পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (অষ্টম খণ্ড) - সুলভ বিশ্বভারতী.pdf/২৮১

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


পুনশ্চ আমার সে নয়, সে অসংখ্যের । বাজে তার ভেরী সকল দিকে, জ্বলে অনিভূত আলো, দোলে পতাকা মহাকাশে । তার সমুখে লজ্জা দিয়ো নাআমার ক্ষতি আমার ব্যথা তার সমুখে কণার কণা । এই ব্যথাকে আমার বলে ভুলব যখনি তখনি সে প্ৰকাশ পাবে বিশ্বরীপে । দেখতে পাব বেদনার বন্যা নামে কালের বুকে শাখাপ্ৰশাখায় ; সব মানুষের জীবনস্রোতে ঘরে ঘরে । অশ্রুধারার ব্ৰহ্মপুত্র উঠছে ফুলে ফুলে তরঙ্গে তরঙ্গে ; সংসারের কুলে কুলে চলে তার বিপুল ভাঙাগড়া (TCas (fæTC3 | চিরকালের সেই বিরহাতাপ, চিরকালের সেই মানুষের শোক, নামল হঠাৎ আমার বুকে এক প্লাবনে থারথারিয়ে কঁাপিয়ে দিল পাজারগুলোসব ধরণীর কান্নার গর্জনে মিলে গিয়ে চলে গেল অনন্তে, কী উদ্দেশে কে তা জানে । আজকে আমি ডেকে বলি লেখনীকে, लखछां शिों नां । কুল ছাপিয়ে উঠুক তোমার দান । দক্ষিণ্যে তোমার ঢাকা পড়াক অন্তরালে एटाटाद्र खाछन्म दार्थी । ক্ৰন্দন তার হাজার তানে মিলিয়ে দিয়ো বিশাল বিশ্বাসুরে । SS V Svoo ܘܦܠܓ