প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (ষোড়শ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/৪৪

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


রবীন্দ্র-রচনাবলী সেই উচ্ছ্বসিত সবুজ কোলাহলের মধ্যে কোন চরম দিনের অদৃশু দূত দিল ওর দ্বারে নাড়া, কানে কানে গেল খবর দিয়ে এই— একদিন নামে শেষ আলো, * سه নেচে যায় কচি পাতার শেষ ছেলেগেলার আসরে দেরি করলে না । তার হাসিমুথের বেদন ফুটে উঠল ভারে ভারে । ফিকে-বেগনি ফুলে । পাত গেল ন দেথা— যতই ঝরে ততই ফোটে, হাতে রাখল না কিছুই । তার সব দান এক বসন্তে দিল উজাড় ক’রে । তার পরে বিদায় নিল এই ধূসর ধূলির উদাসীনতার কাছে । ৫ ভাদ্র ১৩৩৯ কোমল গান্ধার নাম রেখেছি কোমল গান্ধার, মনে মনে । " যদি তার কানে যেত অবাক হয়ে থাকত বসে, বলত হেসে ‘মানে কী’ । মানে কিছুই যায় না বোঝা সেই মানেটাই থাটি । কাজ আছে কর্ম আছে সংসারে, ভালো মন্দ অনেক রকম আছে— তাই নিয়ে তার মোটামুটি সবার সঙ্গে চেনাশোনা