পাতা:লক্ষণ সেন - দুর্গাদাস লাহিড়ী.pdf/২২৯

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


সাক্ষাতে । २९ ? SAMMAMAMM AMMAAA AAAA AAAA AAAA AAAA AAAA AAAAS AAAAA AAAJAAA AAAA AAAAA می برای BBA ASASASASMMMS SSSSSSS SSAAAA AAAASASASS সংগ্রাম-সিংহ।–“বলিয়াছি তো আপনাকে বুঝাইবার সামর্থ্য আমার নাই। কিন্তু কি জানি কেন আমার মনে হয়, রাজকাৰ্য্যে আপনার অভিনিবেশ যেন আবগুক হইয়াছে।” লক্ষ্মণ-সেন।–“আমিও তে। বলিয়াছি,—অভাব যাহার, তাহারই আবশ্বক। আমার অভাবও অনুভূত হইতেছে না ; তাই আবস্তকতাও আমি বুঝিতেছি না । আমার কিসের অভাব ! সমগ্র ভারতবর্ষ এখন আমার প্রাধান্য স্বীকার করিতেছে । সুতরাং সাম্রাজ্য-বৃদ্ধির আকাজক্ষ আমার মমে আর উদয় হয় না । আমি এখন অতুল ধনৈশ্বৰ্য্যের অধীশ্বর ; ধনৈশ্বর্য্যের কামনাও আমার আর নাই। সৌভাগ্য-ক্রমে আমি সুলক্ষণযুক্ত কুমার লাভ করিয়াছি । তোমাদের ন্যায় অমাত্যের পরামর্শক্রমে পরিচালিত হইলে, কুমার লাক্ষ্মণেয় পিতৃ-গৌরব অক্ষুণ্ণ রাখতে পাfরবেন,–এ ভরসাও আমার আছে । তবে আমার কিসের অভাব ? এ বয়সে কেন আর আমি চিত্তকে তত্ত্ব-চিন্তা হইতে বিরত করব ? সৌভাগ্যের উচ্চ-শিখরে আরোহণ করিয়াছি ; কৰ্ম্মের প্রভাব পূর্ণমাত্রায় প্রদর্শিত হইয়াছে । আর কেন ? এ বয়সে এ অবস্থায় কৰ্ম্মঘোরে পুনরাবদ্ধ হইবার কি প্রয়োজন ?” সংগ্রাম-সিংহ —“সকলই বুঝি—সকলই সত্য। কিন্তু বিষয়-বিশেষে আপনার উপদেশ বড়ই প্রয়োজন। সকল । বিষয় আপনি দেখিতে না ইচ্ছা করেন, নিতান্ত আবখ্যক বিষয়ে এক একবার পরামর্শ দিলেও চলিতে পারে ।” লক্ষ্মণ-সেন।–“বাল্য, যৌবন, প্রৌঢ়, বাৰ্দ্ধক্য,-জীবনের এক এক সময়ের এক একটা কাৰ্য্য নির্দিষ্ট আছে। আমি