পাতা:লক্ষণ সেন - দুর্গাদাস লাহিড়ী.pdf/২৪০

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


&○ッ লক্ষণ-সেন । অমলে অহৰ্নিশ দগ্ধ হইয়াছিলেন, শান্তিলাভ-আশায় নদীর জলে র্তাহার ঝম্প-প্রদান করাও অসম্ভব নহে । আবার বীরসিংহ যদি সত্যসত্যই জলে ঝাপ দিয়া প্রাণত্যাগ করিয়৷ থাকেন, শোভার কি শোচনীয় পরিণাম হইবে, চিন্তা করিতেও শরীর শিহরিয়া উঠে। এখনি দেখ-শোভার কি অবস্থাবিপৰ্য্যয় ! বীরসিংহকে না পাইলে, শোভাকেও বাচাইতে পারিব না ।” সেবানন্দ —“আমার মনে হয়, বীরসিংহ জীবিত আছেন। তিনি কখনই নদীর জলে ঝম্প-প্রদান করেন নাই। তাহ। হইলে শোভার ও বৃন্দার শব্দ গুলার সম্ভাবন ছিল । তাহ হইলে, এই কালিন্দীর শুভ্র স্বচ্ছ জলে এখনি আমরা বীরসিংহের দেহ দেখিতে পাইতাম । কালিনীর স্বচ্ছ সলিলে নদীগর্ভ তন্ন তন্ন করিয়া দেখিতে পাইতেছি । কিন্তু কৈ — মনুষ্যের চিহ্ন তো কোথাও নাই!” দয়ানন্দ —"সেবানন্দ ! ও তোমার ভ্রম-ধারণা ! থরস্রোতা তটিনীর গৰ্ত্তে কিছু পতিত হইবা-মাত্র তীরবেগে স্রোতোমুখে তাহা কোথায় ভাসিয়া যায়। দেখ দেখি,—তটিনীর কি বিদ্যুদগতি ।” সেবানন্দ —“আচ্ছ। — আমি বনপ্রদেশ ও নদীগর্ড সন্ধান করিয়৷ দেখিতেছি। আপনি শোভাকে সুস্থ করুন।" শোভা পুনরায় দয়ানদের হাত ছিনাইবার চেষ্টা পাইলেন ; চীৎকার করিয়া কহিলেন,—“যাই—যাই, আমিও যাই!” দয়ানন্দ সাস্বনা দিয়া কহিলেন,—“মা ! বীরসিংহ এখনই আসিবেন । তুমি একটু স্থির হও।”