পাতা:লক্ষণ সেন - দুর্গাদাস লাহিড়ী.pdf/২৮২

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


२१b লক্ষণ-সেন । SAASAASAA AAAA AAAA AAAAMAMMAAA SAAAAASA SAASAASSAAAAAAS AAAAAA পুরুষোত্তম-যাত্রাকালে তাই জয়দেবকে কিছু ধন-রত্ন প্রদান করিয়া গিয়াছিলেন। রাজদত্ত উপহার অত্যধিক না হইলেও, লোকমুখে তাহা অতিরঞ্জিত হইয়া প্রচারিত হইয়াছিল। অজস্র ধনরত্ন প্রাপ্তির সংবাদ প্রচারিত হইলেও জয়দেবেঃ গৃহে তজ্জনিত কোনরূপ আড়ম্বর বৃদ্ধি পায় নাই। জয়দেবেঃ গৃহে এখনও সকলেরই অবারিত দ্বার। সে গৃহ পূৰ্ব্বেও যেরূপ অরক্ষিত অবস্থায় ছিল, এখনও সেইরূপ অরক্ষিত অবস্থায় রহিয়াছে। বিপুল ধনরত্ন পাইয়াও জয়দেব প্রহরীর ব্যবস্থা করেন নাই,-ৰ্তাহার দ্বারদেশে দেীবারিক পদচারণা করে না। নিত্য যেমন দ্বিপ্রহরে পতিপত্নী উভয়েই গ্রামের মধ্যে প্রবেশ করিয়া, স্ত্রীপুরুষ সকলকে আহ্বান করিয়া বলিতেন,— “রাধাশ্যামের ভোগ প্রস্তুত হইয়াছে; আপনার প্রসাদ পাই বেন, আসুন ।”—এখনও তাহার। সেইভাবেই গৃহে গৃহে গমন করিয়া প্রত্যেককে অভ্যর্থনা করিয়া আদিতেছেন। নিত্য যেমন প্রতিদিন পথে পথে বাহির হইয়। পতিপত্নী উভয়েই অতিথি পথিক ভিখারী সকলকে সম্বোধন করিয়া কহিতেন,--“তোমর কে কোথায় অৰ্ভুক্ত আছ ; রাধাশ্যামের ভোগ প্রস্তুত হইয়াছে গ্রহণ করিবে—এস।”—এখনও তাহারা সেই ভাবে সেই স্বপ্নে সেইরূপ আকুলি-ব্যাকুলি প্রকাশ করিয়। রাধাগ্রামের প্রসাদ গ্রহণে সকলকেই আহ্বান করিয়া থাকেন। নিত্য যেমন র্তাহারা পশু-পক্ষী-কীট-পতঙ্গ প্রভৃতিকে আহ্বান করিয়া বলিতেন,—“আয়!—আয়! তোরা প্রসাদ ধাবি, আয়!"আর. তাহারা যেমন আসিয়া তাহদের হাত হইতে প্রসাদ १३ग्न शा३ठ ;-७१म७ ॐांशद्र! ¢ग३ष्ठांtदई ठांशं*ि{#