পাতা:লালন-গীতিকা.djvu/১০৪

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


লালন-গীতিকা যার আশায় জগৎ বিহালে৷ তার কি আছে সকাল বিকাল তিলেকমাত্র না দিলে জল ব্ৰহ্মাণ্ড রয় নাt ॥ বেদবিধির অগোচর সদাই কৃষ্ণপদ্ম নিতি উদয় লালন বলে, মনের দ্বিধায় 呜 দেখে দেখ না ৷ >\b এক ফুলে চার রঙ ধরেছে । ও সে ভাব-নগরে ফুলে কি আজব শোভা করেছে । মূল ছাড়া সে ফুলের লতা, ডাল ছাড়া তার আছে পাতা, এ বড় অকৈতব কথা প্রত্যয় - হবে - কই কার কাছে ॥ কারণ বারির মধ্যে সে ফুল ভেসে বেড়ায় একুল ওকুল শ্বেত-বরন এক ভ্রমরা ব্যাকুল সে ফুলের মধুর আশে ॥ ডুবে দেখ মন দেল-দরিয়ায় যে ফুলে নবীর জন্ম হয় সে ফুল তো সামান্ত নয় লালন কয়, যার মূল নাই দেশে ॥ ১-১ কে পর ভাবে