পাতা:লালন-গীতিকা.djvu/৬৩

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


লালন-গীতিকা সি দ-দরজায় চৌকিদার একজন, অহৰ্নিশি আছে সে চেতন, কিরূপ তারে ভেল্কি মেরে চুরি করে কোন ঘড়ি ॥ ঘর বেড়িয়ে ষোলজন সেপাই, তার এক এক জনের গুণের সীমা নাই, তারাও চোরের না পেলো টের কার হাতে দিব দড়ি ॥ পিতৃধন আজ সব নিল চোরে - নেংটি-ঝাড় করলে আমারে, লালন বলে, একই কালে চোরের হ’লো কি আড়ি ॥ vs)ჯ, মন-চোরেরে ধরবি যদি মন ফাদ পাত আজ ত্রিবেণে ।* অমাবস্যা পূর্ণিমাতে বারামখানা সেইখানে ॥ ১ লুটে ত্রিবেণীর তিনধারা বয়, ( ও তার ) ধারা চিনে ধরতে পারলে হয়, কোন ধারায় তার সদাই বিহার হচ্ছে ভাবের ভুবনে ॥ সামান্তে কি যায় তারে ধরা আট-পহরা দিতে হয় পাহারা, কখন এসে ধারায় মেশে কখন রয় নির্জনে ॥ ২ তিরপিনে

(t