পাতা:লালন-গীতিকা.djvu/৯৯

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


লালন-গীতিকা যাসনেরে সামান্ত নৌকায় সে নদীর বিষম ওড় খায় গেলে প্রাণ হবি নাশ থাকবি অপযশ পারে । যদি সাজাও প্রেমের তরীরে ॥ কারণ সমুদ্দুর পারে গেলে পায় অধর চাদেরে কারণ সমুদ্দুর পার হয়ে গুরুর, যা রে লালন সৎগুরুর বাক ধ’রে ॥ b-br গুরু-রূপের পুলক ঝলক দিচ্ছে যার অস্তরে । কিসের আবার ভজন-সাধন লোক-জানিত করে ॥ বকের ধরন-করণ তাহার হয় দিক-ছাড়া তার নিরিখ সদাই ও সে পলক ভরে নিরিখ ধ’রে যায় সে ভবপারে ॥ .জ্যাস্তে গুরু না পেলাম হেথা ম’লে পায় সে কথার কথা সাধক জানে গুরু মিলে না যথাতথা সদাই দেখে ভজে তারে ॥ গুরু-ভক্তের তুল্য দিব কি যে ভক্তিতে সাই থাকে রাজি লালন বলে, গুরু-রূপে নি-রূপ মানুষ ফেরে ॥ J9)