প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:লিপিকা-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.djvu/১৫০

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ysు লিসিঞ্চা পায়, “তোমাকে মা দেখতে পেয়ে আমার জগতের ইদমদ্ভ উজাকাশ কাল্পায় ভেসে গেল।” মৰ্মে মঙ্গে ভাবতে লাগল, “এত কান্নার মূল্য কি আমার মধ্যে আছে ?” や এমন সময় স্বৰ্য্য উঠা পুৰ্ব্বদিকের নীল পাহাড়ের শিখরে । দেবদারুর শিশির-ভেজা পাতার ঝালরের ভিতর দিয়ে আলো ঝিলমিল করে উঠল। হঠাৎ চারটি বিদেশিনী মেয়ে দুই কুকুর সঙ্গে নিয়ে রাস্তার বাকের মুখে তার সামনে এসে পড়ল। কি জানি কি ছিল তার মুখে, কিম্বা তার সাজে, কিম্বা তার চালচলনে,—বড় মেয়ে ফুটি কৌতুকে খুধু একটুখানি বাকিয়ে চলে গেল। ছোট মেয়ে ছুটি হাসি চাপার চেষ্টা করলে, চাপতে পারলে না ; ফুজনে দুজনকে ঠেলাঠেলি করে খিলখিল করে হেসে ছুটে গেল । কঠিন কৌতুকের হাসিতে ঝরনাগুলিরও সুর ফিরে গেল। তার হাততালি দিয়ে উঠল । প্রবাসী মাথা হেঁট করে চলে আর ভাবে--“আমার দেখার মূল্য কি ওই স্থাসি গ’ H