প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:শরৎ সাহিত্য সংগ্রহ (অষ্টম সম্ভার).djvu/১৯

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


শুভদ{ আমি তোমার কোন কথায় আর থাকব না। তবে না খেয়ে শুকিয়ে শুকিয়ে বোঁটা ময়ে যায়, তাই দু'কথা বলতে হয় । ললনা অতিশয় দুঃখিত হইল । তাহার একটা কথায় এত গভীর অর্থ এবং আহুষঙ্গিক ক্ৰন্দনাদির কারণ ঘটিতে পারে সে নিজেই জানিত না –পিসিমা, আমার ঘাট হয়েচে, এমন কথা আমি আর বলব না। বাস্তবিক কথাটা তাহার ভাল হয় নাই । তাহার জননীও বলিলেন, মা বড় হয়েছ, সব কথা বুঝে বলতে পার না ? তাহার পর সকলের পীড়াপীড়িতে ললনার জননী কিঞ্চিৎ আহার করিলে, বিন্দুবাসিনী আপনার পঞ্চমবধীয়া কন্যা প্রমীলার হাত ধরিয়া হারাণবাবুর বাটতে প্রবেশ করিল। সম্মুখেই রাসমণি দাড়াইয়াছিলেন, তিনি দেখিতে পাইয়া বলিলেন, বিন্দু এদিকে আর আসে না । বিদু অপ্রতিভ হইবার লোক নহে; সেও সহস্তুে বলিল, তুমিই কোন আমাদের ওদিকে যাও দিদি ? 溺 যাবার কি আর জো আছে বোন, ছোট ছেলেটার ব্যারাম নিয়ে এক পাও কোথাও নড়বার সাধি নাই । কি হয়েছে তার ? জর, পিলে, পেটের অস্থখ–কিছুই আর বাকী নাই । বোঁ কোথায় ? এই এতক্ষণে মুখে দুটো ভাত দিয়ে ও-ঘরে ছেলেটার কাছে গিয়ে বসেচে। এত বেলা হ’ল কেন ? হারাণের পথ চেয়ে, সে ত তিনদিন থেকে আর বাড়ি আসে নি। যদি আসে, আরো একটু দেখি—এই রকম করে এতটা বেলা হয়ে গেল । বিন্দু সে স্থান হইতে চলিয়া আসিয়া যে ঘরে বোঁ তাহার পীড়িত কনিষ্ঠ পুত্র মাধবের শিয়রে বসিয়া তাহাকে গল্প শুনাইতেছিল সেইখানে প্রবেশ করিল। মাধব হারাণ মুখোপাধ্যায়ের কনিষ্ঠ পুত্র, বয়ঃক্রম আট বৎসর মাত্র, সে আজ এক বৎসর হইতে ম্যালেরিয়া জর, প্লীহায় পীড়িত হইয়া শয্যাশায়ী পড়িয়া আছে। পীড়। তাহার এমন কিছু কঠিন নহে ; রীতিমত চিকিৎসা হইতে পাইলে এতদিন আরোগ্য হইয়া যাইত, কিন্তু অর্থাভাবে কিছুতেই স্থচিকিৎসা হইতে পাইতেছে না। সামান্ত টোটক ঔষধ, পাচন ও কুইনাইনের উপর ভর করিয়া সে কিছুতেই বসিতে পারিতেছে না । শাস্ত স্কিঞ্চোঙ্গল চক্ষু দুটি জননীর মুখের পানে নিক্ষেপ করিয়া সে বলিল, মা, বাবা আজ তিন-চারদিন আমাকে দেখতে আসেননি কেন ? তিনি এখানে নেই । جسسسس الاسط