প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:শরৎ সাহিত্য সংগ্রহ (ত্রয়োদশ সম্ভার).djvu/১৮৮

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


শরৎ-সাহিত্য-সংগ্ৰহ করিয়া কছিলেন, ব্রজেক্স, তোমার ঔদ্ধত্যের জন্য বাটাভিয়াতে একবার আমার্কে তুমি শাস্তি দিতে বাধ্য করেছিলে। দ্বিতীয়বার বাধ্য ক’রে না। ভারতী মুখ তুলে নাই, তখনও তেমনি পড়িয়াছিল। কিন্তু তাহার সর্বদেহ ঘরথর করিয়া কঁাপিতেছিল। পিঠের উপর স্নেহম্পর্শ বুলাইয়া তেমনি সহজ গলায় কহিলেন, ভয় নেই ভারতী, অপূৰ্ব্বকে আমি অভয় দিলাম। ভারতী মুখ তুলিল না, ভরসাও পাইল না। তাছার দক্ষিণ হস্তের মুদীর্ঘ সরু সরু আস্থলগুলা নিজের মুঠার মধ্যে টানিয়া লইয়া চুপি চুপি বলিল, কিন্তু ওঁরা ত অভয় দিলেন না । ডাক্তার কছিলেন, সহঙ্গে দেবেও না । কিন্তু এ কথা ওরা বোঝে যে, আমি ষাকে অভয় দিলাম তাকে স্পর্শ করা যায় না। একটু হাসিয়া বলিলেন, ভাল খেতে পাইনে ভারতী, আধপেট খেয়েই প্রায় দিন কাটে,—তবুও ওরা জানে এই কটা সরু আস্থলের চাপে আজও ব্রজেক্সের অতবড় বাঘের থাবা গুড়ো হয়ে যাবে। কি বল ব্রজেক্স ? চট্টগ্রামী মগ মুখ কালো করিয়া নীরব হইয়া রহিল। ডাক্তার কহিলেন, কিন্তু অপূৰ্ব্ব যেন না আর এখানে থাকে। ও দেশে যাক। অপূৰ্ব্ব ট্রেটর নয়, স্বদেশকে ও সমস্ত হৃদয় দিয়েই ভালবাসে, কিন্তু অধিকাংশ,—থাক, স্বজাতির নিন্দ আর করব না,—কিন্তু বড় দুৰ্ব্বল । ওকে মজবুত করবার ভার তোমাকে দিলাম সত্য, কিন্তু আমার ভরসা নেই ভারতী। বাড়ি ফিরে গিয়ে ওর আজকের কথা, তোমার কথা, কোনটা ভুলতেই বেশি সময় লাগবে না। ষাকৃ, সে পরের কথা। আপাততঃ আমরা সভানেত্রীকে অস্থবুেদ্ধ করতে পারি আজকের মত সভা ভঙ্গ করা হোক। এই বলিয়া তিনি সুমিত্রার প্রতি চাছিলেন । স্বমিত্রা তাহাকে কখনো তুমি, কখনো আপনি বলিয়া সসম্মানে কথা কহিত, এখন সেইভাবেই কহিল, অধিকাংশের মত যেখানে ব্যক্তিবিশেষের গায়ের জোরে পরাভূত হয়, তাকে আর ঘাই বলুক সভা বলে না। কিন্তু এই নাটক অভিনয় করবারই যদি আপনার সঙ্কল্প ছিল পূৰ্ব্বাহে জানাননি কেন ? ডাক্তার কহিলেন, না হলেই ছিল ভাল, কিন্তু অবস্থাবিশেষে নাটক যদি হয়েও থাকে স্থমিত্র, অভিনয়টা যে ভাল হয়েচে, তা তোমাদের স্বীকার করতে হবে। রামদাস বলিলেন, এ-রকম ষে হতে পারে আমার ধারণা ছিল না । ডাক্তার বলিলেন, বন্ধুত্ব জিনিসটা ষে এমনি ক্ষণভম্বর সে ধারণাই কি তোমার ছিল তলওয়ারকর । অথচ, এমন সত্যও জগতে দুৰ্ল্লভ। ক্লফ আইয়ার কহিল, বৰ্ব্বার এ্যাকটিভিটি আমাদের উঠলো। এখন পালাতে হবে । ›ዊኪ”