প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:শরৎ সাহিত্য সংগ্রহ (দ্বাদশ সম্ভার).djvu/১৪০

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


भग्न६ नांहिडj-नxdयई করতেই হবে নাকি ? সারদা এবার কণ্ঠস্বরে অধিকতর জোর দিয়া বলিল, ই করতেই হবে, নইলে কিছুতেই আমি ছাড়বে না ; এখুনি বলছিলেন কেউ ছিল না বলেই বিয়ে হয়নি, এতদিনে আপনার সেই লোক এসেচি জামি। তাৰুে শিখিয়ে দিয়ে জাসবো কি করে গরীবের ঘর চলে, কি করে সেখানেও ষা-কিছু পাবার সব পাওয়া যায়। কাণ্ডালের মতো আকাশে হাত পেতে কেবল হায় হায় করে মরার জন্তেই ভগবান গরীবের স্বাক্ট করেননি এ বিস্তে তাকে দিয়ে আসবো | তাহার কথা শুনিয়া রাখাল মনে মনে সত্যই বিস্ময়াপল্প হইল, কিন্তু মুখে বলিল, এ বিস্তে শিখতে যদি লে না পারে—শিখতে না যদি চায়, তখন আমার দুঃখের ভার নেৰে কে সারদা ? কার কাছে গিয়ে নালিশ জানাবো ? সারা জবাক হইয়া রাখালের মুখের প্রতি কিছুক্ষণ চাহিয়া থাকিয়া বলিল, কারো কাছে না। মেয়েমানুষ হয়ে এ-কথা সে বুঝবে না, স্বামীর দুঃখের অংশ নেৰে না, বরঞ্চ তাকে বাড়িয়ে ভুলবে এমন হতেই পারে না দেবতা । এ আমি কিছুতে বিশ্বাস করবো না। অার একবার রাখাল জিহাকে শাসন করিল, বলিল না যে, মেয়েদের আমি কম দেখিনি সারা, কিন্তু তারা তুমি নয়। সারাকে সবাই পায় না। জবাব না দিয়া রাখাল নিঃশবে জাহারে মন দিয়াছে দেখিয়া সে পুনশ্চ জিজ্ঞাসা করিল, কিছুই তো বললেন না দেবতা ? এবার রাখাল মুখ তুলিয়। হাসিল, বলিল, সব প্রশ্নের উত্তর বুঝি তখনি মেলে ? ভাবতে সময় লাগে ষে ! সময় তো লাগে, কিন্তু কত লাগে শুনি ? লে-কথা আজই বলবো কি করে সারদা ? যেদিন নিজে পাবো, উত্তর তোমাকেও জানাৰো সেদিন । সেই ভালো, বলিয়া সারদা চুপ করিল। ঘরের মধ্যে একজন নীরবে ভোজন করিতেছে, আর একজন তেমনি নীরবে চাহিয়া আছে। খাওয়া প্রায় শেষ হয় এমন সময়ে একটা ঘন নিশ্বাসের শৰে চক্ষিত হইয়া রাখাল চোখ তুলিয়। কহিল, ও কি ? সারদা সলজে মৃদ্ধ হাসিয়া বলিল, কিছু না তো ! একটু পরে বলিল, পরশু বোধ হয় আমরা হরিশপুরে যাচ্চি দেবতা । পরপ্ত ? তারকের ওখানে ? ই। কাল শনিবার, তার কৰাবু রাতের গাড়িতে আসবেন, পরের দিন রবিবারে चांभां८षम्र ब्रिह्छ बांग्लबन । ৰাওৰা স্থির হোলো কি ক’রে ? À Đe