প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:শরৎ সাহিত্য সংগ্রহ (দ্বাদশ সম্ভার).djvu/২৪৭

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


শেষের পরিচয় সবিতা পাষাণ-প্রতিমার স্থায় বুহিলেন । সারদা সানার স্বরে বলিল, আকুলি-ব্যাকুলি করেও তো মাছুষ নিজে কিছুই পারে না। তার চেয়ে ভগবানের উপর নির্ভর করে থাকাই তো ভালো মা ! সবিতা আৰ্ত্ত-কণ্ঠে বলিলেন, তুমি বুঝবে না। তুমি নিজে সভানের মা হওনি যে ! সস্তান যে কি, তা পুরুষমানুষ বোঝে না, যে-মেয়েরা মা হয়নি তারাও ঠিক বুঝতে পারে না। রেণুর সম্বন্ধে আজ আমি কি করে তোমার কাকাবাবুর মতো নিশ্চিস্থ থাকবো ? চব্বিশ ঘণ্টা ওই গোবিন্দ গোবিন্দ করে দিনপাত করাতেই তো সংসারের সর্বনাশ ঘটেছে, ব্যবসার সৰ্ব্বনাশ ঘটেছে । কখনও কি চৈতন্য হ’ল না ? মেয়েটার মুখ চেয়েও ধর্মের ঝোক থেকে এখনও একটু নিবৃত্ত হতে পারলেন না। সারদা ভীত-চক্ষে সবিতার আরক্তিম মুখের পানে তাকাইয়া রহিল। সবিতা উত্তেজিত অথচ অত্যন্ত মৃদুগলায় বলিতে লাগিলেন, এতকাল ভাবতাম আমার স্বামীর মতো স্বামী বুঝি কখনো কারও হয়নি, হবে না। এখন আমার সে ভুল ভেঙেচে। এখন বুঝেচি আমার স্বামীর মতো আত্মসৰ্ব্বস্ব মানুষ সংসারে অল্পই। নিজের স্ত্রী, নিজের সস্তানের প্রতিও যে-মানুষ অচেনার মতো উদাসীন, এমন মানুষের কি প্রয়োজন ছিল বিবাহ করার । বিবাহও করেচেন ওঁর গোবিন্দরই জন্য। বুঝলে সারদা, তোমরা যাকে ওঁ মহত্ব বলে ভাবে, সেটা ঠিক তার উন্টে । কার মহত্ব উল্টো নতুন-মা ? রাখাল ঘরে প্রবেশ করিতে কারতে হাসি-মুখে প্রশ্ন করিল। সবিতা ঘাড় ফিরাইয়া শাস্ত-গলায় বলিলেন, তোমার কাকাবাবুর। মুহূৰ্ত্তমধ্যে রাখালের হাস্তপ্রসন্ন মুখ গম্ভীর হইয়া উঠিল। সবিতা তাহা লক্ষ্য করিয়া হাসিয়া বলিলেন, আমার রাজু তার কাকাবাবুর এতটুকু নিন্দে সইতে পারে না। রাখাল शखैौद्र-भूथहे বলিল, সেটা তো একটুও আশ্চৰ্য্য নয় মা। সংসারে কাকাবাবুরও যে নিন্দে হতে পারে, এইটেই কি সবচেয়ে আশ্চৰ্য্য নয় ? সবিতা বলিলেন, রাজু, আমি তোমার কাকাবাবুর নিন্দে করিনি। কিন্তু আজও বে— রাখাল হাতজোড় করিয়া বলিল, আর কিছু বলবেন না মা । আমি আগেকার মাছুয, আজকের খবর জানিনে জানতে চাইওনে। যেটুকু আগের খবর জানি সেটুকু পাছে ভেঙে যায় সেই ভয়েই এখন সশঙ্ক হয়ে আছি। সবিতা ক্ষণকাল রাখালের পানে চাহিয়া থাকিয়া ধীরে ধীরে বলিলেন, পাগল ছেলে, এককালের জানা কখনও চিরকালের হতে পারে না। জোর করে তা করতে গেলে, হয় চোখ বুজে অন্ধ হয়ে থাকতে হয়, না হয় চরম ক্ষতির দুঃখ ভোগ করতে হয়। সংসারের এই নিয়ম। সবিতার কণ্ঠস্বরে গভীর স্বেহু উৎসারিত হইল। ३ ११