পাতা:শান্তির স্বপক্ষে.pdf/২৪

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।


স্বর্ণ-কমল

স্বর্ণ-কমল ছিঁড়তে বাড়াই হাত
স্বচ্ছশীতল মানস-সরোবরে,
ডুবছি কেবল ডুবছি অতল গভীরে
দীর্ঘতর হচ্ছে দিবা রাত।
আবাল্য এই সরোবরের তীরে
ঘুরে ফিরে এসেছি বার বার
অতল গভীর শীতল কালে নীরে
নাগাল তাহার পাইনিরে পাইনিরে

এই অন্ধকারে

দীর্ঘতর আঁধারের ছায়া যতই গভীরতর হোক
বয়ে যাবে সময়ের স্রোত,
সময়ত আঁধারেই থেমে থাকবে না?
এই অন্ধকার
ক্রমশঃ যতই ঘনীভূত হোক
যে কোনো মুহূর্ত্তে জেনো
প্রভাতের রং লাগতে পারে,
আলোকে বরণ করতে শঙ্খ বাজাবার
সময় আসতে পারে।
সুতরাং, এসো—
তপস্যায় ব্রতী হই ষতির মতন
সবাই একাত্ম হই
অন্ধকার সময়ের তীরে॥

২২