প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:শেষ প্রশ্ন.djvu/১৬১

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


Ֆ( Գ শেষ প্রশ্ন সতীশ সবিনয়ে মাথা নত করিয়া কহিল, আশীৰ্ব্বাদ করুন, তাই হবে । রবিবার সন্ধ্যার প্রাক্কালে অভ্যাগতেরা আসিয়া উপস্থিত হইলেন,— আসিলেন না শুধু আগুবাবু হরেন্দ্র দ্বার হইতে র্তাহাদের সসম্মানে অভ্যর্থনা কুরিয়া আনিলেন। ছেলেরা তখন আশ্রমের নিত্যপ্রয়োজনীয় কৰ্ম্মে ব্যাপৃত। কেহ আলো জালিতেছে, কেহ বাট দিতেছে, কেহ উনান ধরাইতেছে, কেহ জল তুলিতেছে, কেহ রান্নার আয়োজন করিতেছে। হরেন অবিনাশকে লক্ষ্য করিয়া সহাস্তে কহিল, সেজদা, এরাই সব আমাদের আশ্রমের ছেলে। আপনি যাদের লক্ষ্মী-ছাড়ার দল বলেন। আমাদের চাকর-বামুন নেই, সমস্ত কাজ এদের নিজেদের করতে হয়। বৌদি, আসুন আমাদের রান্না-শালায়। আজ আমাদের পৰ্ব্বদিন, সেখানকার আয়োজন একবার দেখে অস্েিবন চন্দ্রন। নীলিমার পিছনে পিছনে সবাই আসিয়া রান্নাঘরের দ্বারের কাছে দাড়াইলেন। একটি বছর দশ-বারোর ছেলে উনান জালিতেছিল, এবং সেই বয়সের অার একটি ছেলে বঁটিতে আলু কুটিতেছিল, উভয়েই উঠিয়া দাড়াইয়া নমস্কার করিল। নীলিমা ছেলেটিকে স্নেহের কণ্ঠে সম্বোধন করিয়া প্রশ্ন করিল, আজ তোমাদের কি রান্না হবে বাবা ? ছেলেটি প্রফুল্ল মুখে কহিল, আজ রবিবারে আমাদের আলুর দম” হয় । কিম্বা ঝোল কিম্ব আর কিছু— ছেলেটি শুধু কহিল, ডাল আমাদের কাল হয়েছিল।