প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:শেষ প্রশ্ন.djvu/১৬৪

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


শেষ প্রশ্ন ᎼᏬe মুখের প্রতি চাহিয়া একটুখানি হাসিয়া কহিলেন, আমার আর কোন সম্বল না থাকৃ কমল, অন্ততঃ, বয়সের পুজিটা যে জমিয়ে তুলেচি এ তুমিও মানবে। তারই জোরে তোমাকে একটা কথা আজ বলে রাখি, সত্য বাক্য অনেক ক্ষেত্রেই অপ্রিয় হয় তা’ অস্বীকার করিনে, কিন্তু তাই বেলে আপ্রিয় বাক্য মাত্রই সত্য নয় কমল । তোমাকে অনেক কথাই শিবনাথ শিখিয়েছে, কেবল এইটি দেখচি সে শেখাতে বাকী রেখেচে । 量 কমলের মুখ রাঙা হইয়া উঠিল। কিন্তু ইহার জবাব দিল নীলিমা । কহিল, শিবনাথের ক্রটি হয়েছে, মুখুয্যে মশাই,—র্তাকে জরিমানা কোরে আমরা তার শোধ দেব। কিন্তু গুরুগিরিতে কোন পুরুষই ত কম নয়, তাই প্রার্থনা করি, তোমার বয়সের পুজি থেকে আরও দু’একটা প্রিয় বাক্য বার করে আমরা সবাই শুনে ধন্য হই। অবিনাশ অন্তরে জলিয়া গেলেন। এত লোকের মাঝখানে শুধু কেবল উপহাসের জন্যই নয়, এই বক্রোক্তির অভ্যন্তরে যে তীক্ষ ফলাটুকু লুকানো ছিল তাহা বিদ্ধ করিয়াই নিরস্ত হইলনা, অপমান করিল। কিছুকাল হইতে কি এক প্রকার অসন্তোষের তপ্ত বাতাস কোথা হইতে বহিয়া আসিয়া উভয়ের মাঝখানে পড়িতেছিল। ঝড়ের মত ভীষণ কিছুই নয়, কিন্তু খড়-কুটা ধূলা-বালি উড়াইয়া মাঝে মাঝে চোখে মুখে আনিয়া ফেলিতেছিল। অল্প-একটুখানি নড়া দাতের মত, চিবানোর ক্লাজটা চলিতেছিল, কিন্তু চিবানোর আনন্দে বাজিতেছিল । হুরেন্দ্রকে উদ্দেশ করিয়া,কছিলেন, রাগ করতে পারিনে হরেন, তোমার বৌদি নিতান্ত মিথ্যে বলেননি,—আমাকে চিনতে তো তার বাকি নেই,—ঠিকই জানেন আমার পুজি-পাটা সেই সেকেলে সোজা ধরণের, তাতে বস্তু থাকৃলেও রস-কস নেই |