প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:শেষ প্রশ্ন.djvu/১৯০

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


শেষ প্রশ্ন >b ○ কথাগুলি সত্য, সকরুণ এবং আন্তরিকতায় পূর্ণ। কিন্তু কমলের মনের উপর দাগ পড়িলনা । সে প্রত্যুত্তরে কহিল, ঠিক এই কথাই আপনাকে আমি বোঝাতে চাচ্ছিলাম আগুবাবু। সেবা করতে আমি অসম্মত নই, চা বাগানে থাকৃতে অনেকের অনেক সেবা করেচি, এ আমার অভ্যাস আছে। কিন্তু ফিরে পেতে ওঁকে আমি চাইনে। সেবা করেও না, সেবা না করেও না। এ আমার অভিমানের জালা নয়, মিথ্যে দৰ্প করাও নয়,--সম্বন্ধ আমাদের ছিড়ে গেছে, তাকে জোড়া দিতে আমি পারবনা । তাহার বলার মধ্যে উষ্মাও নাই, উচ্ছ্বাসও নাই, নিতান্তই শাদাসিধা কথা। ইহাই আগুবাবুকে এখন স্তব্ধ করিয়া দিল। মুহূৰ্ত্ত পরে কহিলেন, এ কি কথা কমল ? এই সামান্য কারণে স্বামী ত্যাগ করতে চাও ? এ শিক্ষা তোমাকে কে দিলে ? কমল নীরব হইয়া রহিল। আগুবাবু বলিতে লাগিলেন, ছেলেবেলায় এ শিক্ষা তোমাকে যে-ই কেননা দিয়ে থাকৃ, সে ভুল শিক্ষা দিয়েছে। এ অন্যায়, এ অসঙ্গত, এ গভীর অপরাধের কথা । যে গৃহেই তুমি জন্মে থাকো তুমি বাঙুলা দেশেরই মেয়ে, এ পথ তোমার আমার নয়—এ তোমাকে ভুলতেই হবে। জানো কমল, এক দেশের ধৰ্ম্ম আর এক দেশের অধৰ্ম্ম । আর স্বধৰ্ম্মে মৃত্যুও শ্রেয়ঃ । বলিতে বলিতে তাহার দুই চক্ষু দীপ্ত হইয়া উঠিল এবং, কথা শেষ করিয়া যেন তিনি হাপাইতে লাগিলেন। কিন্তু যাহাকে উদেশ করিয়া বলা হইল, সে লেশমাত্র বিচলিত হইলনা। . “ 曹 আগুবাবু কহিতে লাগিলেন, এই মোহই একদিন আমাদের রসাতলের পান টেনে নিয়ে চলেছিল। কিন্তু ভ্রান্তি ধরা পড়ে গেল জন কয়েক মনীষীর চক্ষে । দেশের লোককে ডেকে তারা