প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:শেষ প্রশ্ন.djvu/২৮৮

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


२४-७ * • শেষ প্রশ্ন কমল বলিল, কখনো করিনে তা’ বলতে পারিনে, কিন্তু ব্রহ্মচারীদের ভয় কিসের 7 ছ, বলিয়া অজিষ্ঠ চুপ করিয়া রহিল। হঠাৎ একসময়ে বলিয়া উঠিল, কেঁচো মাটির নীচে অন্ধকারে থাকে, সে জানে বাইরের আলোতে বার হলে তার রক্ষে নেই,—তাকে গিলে খাবার অনেক মুখ হঁা করে আছে। লুকোনো ছাড়া আত্মরক্ষার কোন উপায় সে জানেনা। কিন্তু তুমি জানো মানুষ কেঁচো নয় । ஆண் কি মেয়েমানুষ হলেও না । শাস্ত্রে আছে, নিজের স্বরূপটিকে জানতে পারাই পরম শক্তি,--এই জানাটাই তোমার আসল শক্তি, ন,কমল ? কমল কিছুই না বলিয়া শুধু চাহিয়া রহিল। C অজিত কহিল, মেয়ের যে-বস্তুটিকে তাদের ইহজীবনের যথাসৰ্ব্বস্ব বলে জানে, সেইখানে তোমার এমন একটি সহজ ঔদাসীন্য যে, যত নিন্দেই করি, সে-ই যেন আগুনের বেড়ার মত তোমাকে অকুক্ষণ আগলে রাখে। গারে লাগবার* আগেই পুড়ে ছাই হয়ে যায়। এইমাত্র আমাকে বলছিলে পুরুষের ভোগের বস্তু যারা তা-দর জাত তুমি নও আজ রাত্রে তোমার সঙ্গে মুখোমুখি বসে এই কথাটার মানে স্পষ্ট হয়ে আস্চে । আমাদের নিন্দে-মুখ্যাতিকে অবজ্ঞা করার সাহস যে তুমি কোথায় পাও তাও বুঝতে পারচি। ' কমল কৃত্রিম বিস্ময়ে মুখ তুলিয়া কহিল, ব্যাপার কি, অজিতবাবু, কথাগুলো যে অনেকটা জ্ঞানবানের মতো শোনাচ্চে ? • অজিত কহিল, আচ্ছা কমল, সতি্যু বলে আমার মতামতও কি অন্য সক্টলের মত তোমার কাছে এমুনি তুচ্ছ ? (`) কিন্তু এ কথা বুেনে আপনার হবে কি ? কমল, নিজেকে শক্তিমান বলে আমি তোমার কাছে কোনদিন