পাতা:শেষ প্রশ্ন.djvu/৩১৫

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


শেষ প্রশ্ন : ర్చి o কি এমনি তুচ্ছ জিনিস যে, এ ছাড়া আর তার কোন প্রয়োজনই নেই ? নীলিমা কহিল, নেই, এ কথা তো লেখিকা বলেননি। দুর্ভাগ মানুষগুলোর প্রয়োজন যে সহজে মেটেন এ আশঙ্কা তার নিজেরও ছিল। একটুপানি হাসিয়া কহিল, উচ্ছাসের কথা বলছিলে ঠাকুরপো, অক্ষয়বাবু উপস্থিত নেই, তিনি থাকৃলে বুঝতেন ওর আতিশয্যটা আজকাল কোনদিকে চেপেছে। হরেন্দ্র জবাব দিল, আপনি গালাগালি দিতে থাকৃলেই যে পচে যাবো তাও নয় বৌদি। s শুনিয়া আশুবাবু নিজেও একটু হাসিলেন, কহিলেন, বাস্তবিক হরেন, আমারও মনে হয় গল্পটিতে লেখিকা মেয়েদের রূপের সত্যকার প্রয়োজনকেই ইঙ্গিত করেছেন,— o? কিন্তু এই কি ঠিক ? ঠিক নয়, এ কথা জগৎসংসারের দিকে চেয়ে মনে কুরা কঠিন। হরেন্দ্র উত্তেজিত হইয়া উঠিল, বলিল, জগৎ-সংসারের দিকে চেয়ে যাই কেননা মনে করুন, মানুষের দিকে চেয়ে একে স্বীকার করা আমার পক্ষেও কঠিন। মানুষের প্রয়োজন জীব-জগতের সাধারণ প্রয়োজনকে অতিক্রম করে বহুদূরে চলে গেছে—তাইতে সমস্যা তার এমন বিচিত্র, এতো দুরূহ। এক চালুনিতে ছেকে বেছে ফেলা যায়না বলেই তো তার মর্য্যাদা আশুবাবু। তাও বটে। গল্পের বাকিটা শুনি অজিত। হরেন্দ্র ক্ষুণ হইল, বাধা দিয়া কহিল, সে হবেনা আগুবাবু। তুচ্ছতাচ্ছল্য কোরে উত্তরটা এড়িয়ে যেতে আপনাকে আমি দেবোনা। হয় আমাকে সত্যিই স্বীকার করুন, না হয় আমার ভুলটা দেখিয়ে