প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:শেষ প্রশ্ন.djvu/৩৩০

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


শেষ প্রশ্ন ৩২৬ তো কাজের অবধি নেই, কিন্তু কেউ কি তাকে পরাণীন ভাবে নাকি ? এই সংসারে আমার নিজের খাটুনিই কি সামান্ত ? - আশুবাবু গভীর বিস্ময়ে মুগ্ধ-চক্ষে তাহার প্রতি চাহিয়া রহিলেন। বস্তুতঃ, এই ধরণের কোন কথা এতদিন তাহার মুখে তিনি শোনেন নাই । o L. নীলিমা বলিতে লাগিল, কমল বসে থাকৃতে তো জানেনা, তখন স্বামী-পুত্র-সংসার নিয়ে সে কৰ্ম্মের মধ্যে একেবারে তলিয়ে যেতো— আনন্দের ধারার মত সংসার তার মাথার ওপর দিয়ে বয়ে যেতো ও টেরও পেতোনা। কিন্তু যেদিন বুঝতো স্বামীর কাজ বোঝা হয়ে তার ঘাড়ে চেপেচে, আমি দিব্যি করে বলতে পারি, কেউ একটা দিনও সে সংসারে তাকে ধরে রাখতে পারতোনা । I J আগুবাবু আস্তে আস্তে বলিলেন, তাই বটে। তাই মনে হয়। অদূরে পরিচিত মোটরের হর্ণের আওয়াজ শোনা গেল। বেলা জানাল দিয়া মুখ বাড়াইয়া দেখিয়া কহিল, ই, আমাদেরই গাড়ী। অনতিকাল পরে ভূত্য আলো দিতে আসিয়া কমলের আগমন সম্বাদ দিল । {o কয়দিন যাবৎ আগুবাবু এই প্রতীক্ষা করিয়াই ছিলেন, অথচ, খবর পাওয়া মাত্র তাহার মুখ অতিশয় মান ও গম্ভীর হইয়া উঠিল। এইমাত্র আরাম কেদারায় সোজা হইয়া বসিয়াছিলেন, পুনরায় হেলান দিয়া গুইয়া পড়িলেন । c * " ঘরে ঢুকিয়া কমল সকলকে নমস্কার করিল, এবং আণ্ডবাবুর পাশের. চৌকিতে গিয়া বসিয়া পড়িয়া বলিল, শুনলাম আমার জন্তে ভারি ব্যস্ত হয়েছেন। কে জানতো আমাকে আপনারা এত ভালোবাসেন,— তাহলে যাবার আগে নিশ্চয়ই একটা খবর দিয়ে যেভাম " এই বলিয়া