প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:শেষ প্রশ্ন.djvu/৩৮৪

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


শেষ প্রশ্ন VС)b- o অজিত সেইটুকু দেখাইয়া প্রশ্ন করিল, যাবে না কি ? যাবো বই কি। নিমন্ত্রণ জিনিসটা তুচ্ছ করতে পারি অামার এত দর নয়। কিন্তু তুমি ? یه« . অজিত দ্বিধার স্বরে বলিল, তাই ভাব চি । আজ শরীরটা তেমন— তবে, কাজ, নেই গিয়ে । o অজিতের চোখ তখনো চিঠির পরে ছিল । নইলে কমলের ঠোটের কোণে কৌতুক-হাস্তের রেখাটুকু নিশ্চয় দেখিতে পাইত । যেমন করিয়াই হোকৃ, বাঙালী-মহলে খবরটা জানাজানি হইয়াছে যে উলয়ে আগ্রা ছাড়িয়া যাইতেছে । কিন্তু কি ভাবে ও কোথায় এ সম্বন্ধে লোকের কৌতুহল এখনো সুনিশ্চিত মীমাংসায় পৌঁছে নাই। অকালের মেঘের মত কেবলি আন্দাজ ও অনুমানে ভাসিয়া বেড়াইতেছে। অথচ, জানা কঠিন ছিলনা,—কমলকে জিজ্ঞাসা করিলেই জানা যাইতে পারিত তাহাদের গম্য স্থানটা আপাততঃ অমৃতসর । কিন্তু এটা কেহ ভরসা করে নাই । [. o অজিতের বাবা ছিলেন গুরুগোবিন্দের পরম ভক্ত। তাই শিখেদের মহাতীৰ্থ অমৃতসরে তিনি খালসী-কলেজের কাছাকাছি মাঠের মধ্যে একটা বাঙ লো-বাড়ী তৈরি করাইয়াছিলেন। সময় ও সুবিধা পাইলেই আসিয়া বাস করিয়া যাইতেন । র্তাহার মৃত্যুর পরে বাড়ীটা ভাড়ায় খাটিতেছিল, সম্প্রতি খালি হইয়াছে ; এই বাটতেই দু'জনে কিছুকাল বাস করবে। মূল-পত্র যাইবে লরিতে, এবং পরে, শেষ রাত্রে মোটরে করিয়া উভয়ে রওনা হইবে। সেই প্রথম দিনের স্মৃতি,—এটা কমলের অভিলাষ । { Ü অজিত কহিল, হরেনের ওখানে তুমি কি এক যাবে নাকি ? যাইনা। আশ্রমের দোর তো তোমার খোলাই রইলো, সুবে খুলি