পাতা:শ্রীমদ্‌ভগবদ্‌গীতা-বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়.djvu/১৪১

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


3Vరిa স্ত্রীমদ্ভগবদগীত। আমরা ক্ষুদ্রবুদ্ধি, এই ব্যাখ্য' বুঝিতে গিয়া যে গোলযোগে পড়িয়াছি, প্রাচীন মহামহোপাধ্যায়দিগের পাদপদ্মবন্দনাপূৰ্ব্বক আমি তাহ নিবেদন করিতেছি । যে আপনার সন্দেহ ব্যক্ত কবিতে সাহস না করে, তাহার কোন জ্ঞানই জন্মে নাই । এবং জন্মিবারও সম্ভাবনাও নাই । ‘যাবৎ, তাবৎ’ শব্দ পরিমাণ বাচক । কিন্তু কেবল যাবৎ বলিলে কোন পরিমাণ বুঝ। ঘtয় না । একটা যাবৎ থাকিলেই, তার একট। তাবৎ আছেই । একটা তাবৎ থাকিলেই তার একটা যাবৎ আছেই । এমন অনেক সময়ে ঘটে, যে কেবল “যাবৎ” শব্দটা স্পষ্ট, তাহার পরবর্তী “তাবৎ"-কে বুঝিয়া লইতে হয় ; যথা—“আমি যাবৎ না আসি, তুমি এখানে থাকিও ” ইহার প্রকৃত অর্থ “আমি যাবৎ না আসি (তাবৎ) তুমি এখানে থাকিও।” অতএব স্পষ্টই হউক, আর উহাই হউক, যাবৎ থাকিলেই তাবৎ থাকিবে । তদ্রুপ তাবৎ থাকিলেই যাবৎ থাকিবে । এই যাবৎ তাবৎ শব্দের পরস্পরের সম্বন্ধ এই, যে বস্তুর সঙ্গে যাবৎ থাকে, আর যাহার সঙ্গে তাবৎ থাকে, উতয়ের পরিমাণ এক বা সমান বলিয়া নিদিষ্ট হয় । অতএব যাবৎ তাবৎ থাকিলে দুইটী তুল্য বা তুলনার বস্তু আছে, ইহাই বুঝিতে হইবে। “আমি ষাবৎ না আসি, (তাবৎ) তুমি এথানে থাকিও” এই বাক্যের প্রকৃত তাৎপর্য্য এই যে “আমার পুনরাগমন পৰ্য্যস্ত , বে কাল, আর তোমার এখানে অবস্থিতি কাল, উভয়ে সমান হইবে।” এখানে এই দুইট সময় তুল্য বা তুলনীয়। কারণে আনন্দগিরি বলিয়াছেন "বেদশব্দেনত্ৰ কৰ্ম্মকাওমেব গৃহতে, সেই কারণে ইনিও বলিয়াছেন “দর্কেযু বেবেযু’ অর্থে "বেদোক্তেষু কৰ্ম্মস্থ ।"