পাতা:শ্রীমদ্‌ভগবদ্‌গীতা-বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়.djvu/১৪৫

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


*g শ্ৰীমদ্ভগবদ্গীত । লইয়া সোজা অর্থ করিলেই অর্থ হয়, সেখানেও কি যাবান তাবান বসাইয়া লইতে হইবে ? এখানে কি নুতন যাবান তাবান না বসাইলে অর্থ হয় না ? হয় বৈ কি । বড় সোজ। অর্থই আছে। যাবানর্থ উদপানে সৰ্ব্বতঃ সংপ্ল,তোদকে। তাবান সৰ্ব্বেষু বেদেষু ব্রাহ্মণস্ত বিজানতঃ ॥ ইহার সোজ। অর্থ আমি এইরূপ বুঝি ;--- সৰ্ব্বত: স প্ল তোদকে সতি উদপালে যাবানর্থ বিজানতে ব্ৰাহ্মণস্ত সৰ্ব্বেষু বেদেষু তাধানর্থঃ । অর্থাৎ সকল স্থান জলে প্লাবিত হইলে উদপানে অর্থাৎ ক্ষুদ্র জলাশয়ে যাবৎ প্রয়োজন, ব্ৰহ্মজ্ঞ ব্রহ্মনিষ্ঠের সমস্ত বেদে তাবৎ খঞ্জয়েtঞ্জন । মহামহোপাধ্যায় প্রাচীন ঋষিতুল্য ভাষ্যকার টীকাকারের যে এই সহজ অর্থের প্রতি দৃষ্টি করেন নাই, আমার এরূপ বোধ হয় না । আমার বোধ হয়, যে তাহারা এই অর্থের প্রতি বিলক্ষণ দৃষ্টি করিয়াছেন এবং অতিশয় দুরবর্তী দেশকালপাত্রজ্ঞ পণ্ডিত বলিয়াই এই সহজ অর্থ পরিত্যাগ করিয়াছেন। দুইটা ব্যাখ্যার প্রকৃত তাৎপৰ্য্য পর্য্যালোচন করিলেই পাঠক তাহা বুঝিতে পারিবেন । শেষে কথিত এই সহজ ব্যাখ্যার তাৎপৰ্য্য কি ? সৰ্ব্বত্র জলপ্লাবিত হইলে ক্ষুদ্র জলাশরে লোকের আর কি প্ররোজন থাকে ? কোন প্রয়োজনই থাকে না । কেন না, সৰ্ব্বত্র জলপ্লাবিত-সকল ঠান্থই জল পাওয়া যায় । ঘয়ে বসিয়া জল পাইলে কেহ আর বাপী কুপাদিতে যায় না। তেমনি যে ঈশ্বরকে জানিয়ছে, তাছার পক্ষে বেদে আর কিছুমাত্র প্রয়োজন নাই ।