পাতা:শ্রীমদ্‌ভগবদ্‌গীতা-বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়.djvu/১৮৭

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


እግቆ শ্ৰীমদ্ভগবদগীতা । যজ্ঞার্থাৎ কৰ্ম্মণোহন্তত্ৰে লোকোহয়ং কৰ্ম্মবন্ধনঃ । তদৰ্থং কৰ্ম্ম কৌন্তেয় মুক্তসঙ্গঃ সমাচর ॥ ৯ । যজ্ঞার্থ যে কৰ্ম্ম, তদ্ভিন্ন অন্ত্যন্ত্ৰ কৰ্ম্ম ইহলোকে বন্ধনের কারণ । হে কৌন্তেয় ! তুমি সেই জন্ত ( যজ্ঞার্থে ) অনাসক্ত হইয়া কৰ্ম্মানুষ্ঠান কর । ৯ । যজ্ঞ শব্দের অর্থের উপর এই শ্লোকের ব্যাখ্যা নির্ভর করে । সচরাচর, বেদোক্ত ক্রিয়াকলাপকে পুৰ্ব্বে যজ্ঞ বলিত,—যথা অশ্বমেধাদি । এক্ষণে সৰ্ব্বপ্রকার শাস্ত্রোক্ত ক্রিয়াকলাপকেই যজ্ঞ বলে । প্রাচীন ভাষ্যকার শঙ্কর ও ক্রীধর এ অর্থে গ্রহণ করেন না । শঙ্কর বলেন,—“যজ্ঞে বৈ বিষ্ণুরিতি শ্রত্যেজ্ঞ ঈশ্বরঃ” । শ্ৰীধর সেই অর্থ গ্রহণ করেন । মধুসূদন সরস্বতী ও এইরূপ অর্থ করেন । রামানুজ তাহ' বলেন না । তিনি দ্রব্যাজনাদিক কৰ্ম্মকে যজ্ঞ বলেন। শঙ্করাদি কথিত যজ্ঞ শব্দের অর্থ গ্রহণ করিলে, এই শ্লোকের অর্থ এইরূপ হয়, যে ঈশ্বরোদিষ্ট ভিন্ন যে সকল কৰ্ম্ম, তাহা কেবল কৰ্ম্মকল ভোগের জন্ত বন্ধন মাত্র । অতএব অনাসক্ত হইয়া কেবল ঈশ্বরোদেশেই কৰ্ম্ম করিবে । তাহা হইলে, বিচাৰ্য্য শ্লোকের অর্থ এই হয় যে, ঈশ্বরীরাধনার্থ যে কৰ্ম্ম ভহুি ভিন্ন অন্ত সকল কৰ্ম্ম কৰ্ম্মফলভোগের বন্ধন মাত্র } অতএব কেবল ঈশ্বরীরাধনার্থই কৰ্ম্ম কল্লিবে । এস্থলে জিজ্ঞাস্ত হইতে পারে, তাও কি হয় ? ভগবাৰুই স্বয়ং বলিতেছেন, নিতান্ত পক্ষে প্রকৃতিতাড়িত হইয় এবং