পাতা:শ্রীমদ্‌ভগবদ্‌গীতা-বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়.djvu/২০

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


প্রথম স্বাধ্যায় । - সঞ্জয় বলিলেন— বুছিত পাওবসৈন্ত দেখিয়া রাজা দুৰ্য্যোধন আচাৰ্য্যের নিকটে গিয়া বলিলেন। ২ । দুৰ্য্যোধনাদির অস্ত্রবিদ্যার আচাৰ্য্য ভরদ্বাজপুত্র দ্রোণ। ইনি পাগুবদিগেরও গুরু। - ইনি ব্রাহ্মণ। কিন্তু যুদ্ধবিদ্যায় অদ্বিতীয় । শস্ববিদ্যা ক্ষত্রিয়দিগেরই ছিল, এমন নহে । দ্রোণাচাৰ্য্য, পরশুরাম, কৃপাচাৰ্য্য, অশ্বথাম, ইহারা সকলেই ব্রাহ্মণ, অথচ সচরাচর ক্ষত্রিয়দিগের অপেক্ষ যুদ্ধে শ্রেষ্ঠ বলিয়া বর্ণিত হইয়াছেন। যখন পশ্চাৎ স্বধৰ্ম্মপালনের কথা উঠবে তখন এই কথা স্মরণ করিতে হইবে । যুদ্ধাৰ্থ সৈন্য সন্নিবেশকে ব্যুহ বলে। সমগ্ৰস্ত তু সৈন্যস্ত বিদ্যাসঃ স্থানভেদতঃ। স ব্যুহ ইতি বিখ্যান্তো যুদ্ধেযু পৃথিবীভূজাম্ ॥ আধুনিক ইউরোপীয় সমরে সেনাপতির ব্যুহরচনাই প্রধান কাৰ্য্য । পশ্বৈতাং পাণ্ডুপুত্রাণামাচাৰ্য্য মহতীং চমূম । বুঢ়াং দ্রুপদপুত্রেণ তব শিষ্যেণ ধীমতী ॥ ৩। হে আচাৰ্য্য ! আপনার শিষ্য ধীমান দ্রুপদপুত্রের দ্বারা বৃহিত পাগুবদিগের মহতী সেনা দর্শন করুন। ৩। দ্রুপদপুত্র ধৃষ্টদ্যুম, পাগুবদিগের একজন সেনাপতি। তিনিই ব্যুহ রচনা করিয়াছিলেন । কথিত আছে ইহার পিতা দ্রোণবধকামনায় বক্স করিলে ইহার জন্ম হয়। ইনিও ফ্রোণের শিষ্য বলিয়া বর্ণিত হইতেছেন। এ কথাটা স্বধৰ্ম্মপালন বুঝিবার সময়ে