পাতা:শ্রীমদ্‌ভগবদ্‌গীতা-বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়.djvu/৪০

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


द्विष्टुंौग्न ॐथjांझै ? ཧྥ ཨོཾ་ হে ভারভ । হৃষীকেশ হাস্ত করিয়া উভয় সেনার মধ্যে বিষাদপর অর্জুনকে এই কথা বলিলেন। ১০ । শ্ৰীভগবান উবাচ । অশোচ্যানস্বশোচস্তুং প্রজ্ঞাবাদাংশ্চ ভাষসে । গতাসূনগতাসূংশ্চ নানুশোচন্তি পণ্ডিতঃ ॥ ১১ ৷ শ্ৰীভগবান বলিতেছেন, তুমি বিজ্ঞের স্থায় কথা কহিতেছ বটে ; কিন্তু যাহাঁদের জন্ত শোক করা উচিত নহে তাহাদের জন্ত শোক করিতেছ। কি জীবিত, কি মৃত, কাহারও জন্ত পণ্ডিতেরা শোক করেন না । ১১ ৷ এইখানে প্রকৃত গ্রন্থারম্ভ । এখন, কি কথাটা উঠিতেন্থে তাহা বুঝিয়া দেখা যাউক । দুৰ্য্যোধনাদি অন্তায় পূৰ্ব্বক পাণ্ডবদিগের রাজ্যাপহরণ করিয়াছে। যুদ্ধ বিনা তাহীর পুনরুদ্ধারের সম্ভাবনা নাই । এখানে যুদ্ধ কি কৰ্ত্তব্য ? মহাভারতের উদ্যোগ পর্বে এই কথাটার অনেক বিচার হইয়াছে। বিচারে স্থির হইয়াছিল যে যুদ্ধই কৰ্ত্তব্য। তাই এই উভয় সেনা সংগৃহীত হইয়া পরস্পরের সন্মুখীন হইয়াছে। এ অবস্থায় যুদ্ধ কৰ্ত্তব্য কি না, আধুনিক নীতির অনুগামী হইয়া বিচার করিলেও, আমরা পাগুবদিগের সিদ্ধাস্তুের যাথার্থ্য স্বীকার করিব । এই জগতে যত প্রকার কৰ্ম্ম আছে, তন্মধ্যে সচরাচর যুদ্ধই সৰ্ব্বাপেক্ষ নিকৃষ্ট । কিন্তু ধৰ্ম্মযুদ্ধও আছে। আমেরিকায় ওয়াশিংটন, ইউরোপে উলিয়ম দি সাইলেণ্ট, এবং ভারতবর্ষে প্রতাপসিংহ প্রভৃতি যে যুদ্ধ করিয়াছিলেন, তাহ