পাতা:শ্রীমদ্‌ভগবদ্‌গীতা-বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়.djvu/৬৪

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


দ্বিতীয় অধ্যায় । 證愛 আমরা বুদ্ধি বলি, মার্থাৎ যে শক্তির দ্বারা আমরা প্রত্যক্ষাঙ্গি হইতে প্রাপ্ত জ্ঞান লইয়া বিচার করি, তাছার অপেক্ষ উচ্চতর আমাদের আর এক শক্তি আছে। যাহ। বিচারে অপ্রাপ্য, সেই শক্তির প্রভাবে আমরা তাহ জানিতে পারি । ঈশ্বর, আত্মা, এবং জগতের একত্ব সম্বন্ধীয় জ্ঞান আমরা সেই মছতী “Ifs sềIs •i# i aề “Transcendental Philosophy,” সৰ্ব্ববাদী সন্মত নহে। অতএব এমন লোক অনেক আছেন যে আত্মার অস্তিত্ব ও অবিনাশিতায় বিশ্বাস তাহাদের পক্ষে দুৰ্লভ । তবে যাহা, আমার জ্ঞান ও বিশ্বাসমতে সত্য, তাহা আমি এখানে বলিতে বাধ্য। আমার নিজের বিশ্বাস এই শ্বে চিত্তবৃত্তি সকল সমুচিত মার্জিত হইলে, আত্ম সম্বন্ধীয় এই জ্ঞান স্বতঃসিদ্ধ হয় । ক্ষ ভক্তের এ সকল কচকচিতে কোন প্রয়োজন নাই। ঈশ্বরভক্ত, কেবল ক্ষুদ্র দর্শন শাস্ত্রের উপর নির্ভর করিয়া আত্মার স্বাতন্ত্র্য বা অবিনাশিত স্বীকার করেন না । ভক্তের পক্ষে ইহাই যথেষ্ট ষে ঈশ্বর আছেন, এবং তিনি স্বয়ং বলিয়াছেন ষে তিনিই পরমাত্মা, এবং স্বয়ংই সৰ্ব্বভূতে অবস্থান করিতেছেন। তবে ষে এই দীর্ঘ বিচারে প্রবৃত্ত হইলাম, তাহার কারণ এই ষে অনেকে অসম্পূর্ণ বিজ্ঞানের আশ্রয় গ্রহণ করিয়া জাত্মতত্ত্বকে উপস্থলিত করেন । তাহীদের জানা উচিত যে আত্মতত্ত্ব পাশ্চাত্য বিজ্ঞানের অভীত হউক, বিজ্ঞানবিক্ষদ্ধ লছে। S S BBB BBBBS BBB BB LLLLS BelM MBBDD DBBBBBD DBBB BBB BBBD DBB DD DB S BBBBSBS BBBBB BB BBS