পাতা:সিরাজদ্দৌলা - অক্ষয়কুমার মৈত্রেয়.pdf/৬৫

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।
৫১
স্বার্থচিন্তা।

উঠাইয়া লইলেন, এবং সকলকে শুনাইয়া দিলেন যে, আজ হইতে সিরাজদ্দৌলা বাঙ্গালা, বিহার, উড়িষ্যার যৌবরাজ্যে অভিষিক্ত হইলেন।[১]

 সিরাজদ্দৌলা সন্তুষ্ট হইলেন, কিন্তু দেশের লোকে সন্তুষ্ট হইতে পারিল না। যাহারা নানা উপায়ে অর্থোপার্জ্জন করিত, যাহারা গোপনে গোপনে সিংহাসন কাড়িয়া লইবার আয়োজন করিত, যাহারা রাজকর্ম্মচারী হইয়াও রাজবিদ্রোহিতার পরিচয় দিত, যাহারা বিদেশীয় বণিক হইয়াও দেশের লোকের মুখের গ্রাস কাড়িয়া খাইত, তাহারা যখন একে একে এই সংবাদ অবগত হইল, তখন সকলেই একে একে স্বার্থরক্ষার জন্য চিন্তিত হইয়া উঠিল!


  1. মুতক্ষরীণে ইহার উল্লেখ দেখিতে পাওয়া যায় না। কিন্তু অন্যান্য প্রমাণের উপর নির্ভর করিয়া এস্থলে আমরা মুসলমান ইতিহাস লেখকের অনুসরণ করিতে পরিলাম না।