প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:সুকথা - দীনেশচন্দ্র সেন.pdf/১৪

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।
সুকথা

নিদ্রাভঙ্গ হইয়া গেল, তখন তৈলাভাবে গৃহদীপ নির্ব্বাণোন্মুখ, রাজা তাঁহার প্রহরিগণকে সেই দীপে তৈলনিষেকের জন্য আহ্বান করিলেন, কিন্তু শৈত্যাধিক্যে প্রহরিগণ গাঢ় নিদ্রার বশবর্ত্তী হইয়াছিল। “বাহিরে কে আছ?” এই প্রশ্নের উত্তরে রাজা শুধু শুনিতে পাইলেন,—“আমি মাতৃগুপ্ত।” তখন আদেশপ্রাপ্ত হইয়া বিচিত্ররূপে সজ্জিত রাজার সুরম্য শয়নপ্রকোষ্ঠে মাতৃগুপ্ত প্রবেশ করিলেন, এবং তৈলনিষেকে দীপটি প্রজ্বলিত কবিয়া দিলেন। “কত রাত্রি হইয়াছে।” রাজা জিজ্ঞাসা করাতে মাতৃগুপ্ত বিনীতভাবে জানাইলেন, রাত্রি প্রভাতের আর এক প্রহর মাত্র বাকী আছে। রাজা বলিলেন,—“তুমি কিরূপে তাহা জানিলে? তুমি কি রাত্রিতে ঘুমাও নাই?” সুযোগ পাইয়া মাতৃগুপ্ত তখনই একটি কবিতা