পাতা:সুকথা - দীনেশচন্দ্র সেন.pdf/২৫

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।
১৭
সুকথা

নিঃসরণের বিশেষ ব্যবস্থা হওয়াতে কাশ্মীরের কোন কোন স্থান কথঞ্চিৎ উর্ব্বরতা লাভ করে। কিন্তু পরবর্ত্তী নৃপতিবর্গ ভূমির উৎকর্ষসাধনে কোন মনোযোগ প্রদান করেন নাই। সুতরাং ক্রমাগত বন্যার জল অপ্রতিরুদ্ধ গতিতে সমস্ত দেশ প্লাবিত করিতে থাকে, এই কারণে কাশ্মীর দুর্ভিক্ষের উৎপাতে প্রায় জনমানবশূন্য হইয়া পড়িল। প্রতি খাড়ি (১০ মণ, ১২ সের) ধান্যের মূল্য ১০৫০ দীনার হইয়া দাঁড়াইল। মনুষ্য ও গৃহপালিত পশুগণের যেরূপ অবস্থা হইল, তাহা বর্ণন করা যায় না।

 চণ্ডালগৃহে পালিত সূর্য্য এই সময় রাজসকাশে উপস্থিত হইয়া জানাইলেন যে, যদি রাজা তাঁহাকে মুক্ত হস্তে ধন প্রদান করিতে কুণ্ঠিত না হন, তাহা হইলে তিনি এই দেশময় দুর্ভিক্ষ ও