পাতা:১৫১৩ সাল.pdf/৮৩

এই পাতাটিকে বৈধকরণ করা হয়েছে। পাতাটিতে কোনো প্রকার ভুল পেলে তা ঠিক করুন বা জানান।
৭০
১৫১৩ সাল।

হউক, “সাবধানে বিনাশ নাই” এই প্রবাদ অতি সত্য। আর এক কথা। আমাদের এই season এর কার্য্য শেষ হইতে আর অধিক বিলম্ব নাই। অতএব এখন কিছু বিশেষ সাবধানতার প্রয়োজন।”

 একটু ব্যঙ্গভাবে আমি বলিলাম:—

 “তোমার এখনও জুজুর ভয় যায় নাই দেখিতেছি। এই জনশূন্য স্থানে কোন্ শত্রুর চর আসিতে সাহস করিবে? ধরিলাম সে আসিয়াছে। আচ্ছা, সে খাইবে কি?”

 আমার বক্তব্য শেষ হয় নাই, এমন সময় তারহীন বার্ত্তা প্রেরণ করিবার যন্ত্রের ঘণ্টা বাজিয়া উঠিল। বন্ধুবর যে সংবাদ পাইলেন, তাহা অতীব বিস্ময়কর! উহা এই:—

 “সাবধান। শত্রুর চর আপনার ঘরে প্রবেশ করিয়াছে। আপনাদিগের গতি পুঙ্খানুপুঙ্খরূপে সে লক্ষ্য করিতেছে। ঘোরতর বিপদ শীঘ্রই উপস্থিত হইবে।”

 এই সংবাদে বন্ধুবরের ও আমার মুখ বিবৰ্ণ হইয়া গেল। একটু প্রকৃতিস্থ হইয়া বন্ধুবর জিজ্ঞাসা করিলেন:—

 “তুমি কে?”

 উত্তর আসিল:—“আমি হরিশ!”

 “তুমি এখন কোথায়?”

 “চারু বাবুর বাটীতে।”

 চারু বাবু আমাদিগের কোম্পানীর একজন ডাইরেক্টার্।

 “এতদিন কোথায় ছিলে?”

 “গুম হইয়া—সে অনেক কথা। সাক্ষাতে সব বলিব। বিশেষ সাবধানে থাকিবেন।”

 “আচ্ছা।”

 Receiver তুলিয়া রাখিয়া বন্ধুবর আমায় বলিলেন:—