পাতা:Dialogues, Intended to Facilitate the Acquiring of the Bengali Language.djvu/১০৯

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।

(96)

 যে আজ্ঞা মহাশয় করার লিখিয়া লউন দশ রোজ পরে টাকা না দেই পেয়াদার রোজের কড়ি দিব।

 দশ রোজ দেরি হইতে পারিবে না পাঁচ রোজের করার লিখিয়া দে।


 মহাশয় পাঁচ রোজের মধ্যে সুসার করিতে পারি আমার এমত বিষয় কি। দোহাই মহাশয়ের দশ দিনের আজ্ঞা হউক।

 আরে এ বেটা বড়ই কৈফিয়তবালা ইহাকে সুন্দররূপ সাজা না দিলে খাজানার টাকা দিবে না।

 যাহা করুণ কর্ত্তা মহাশয়। এ শন বড় লাচারিতে পড়িয়াছি।


তৎকথা।

 তুই টাকা কোথাও পাইস না শোন কি কোষ্টার উপরে লইলে এ ক্ষণে দিতে পারিস টাকা রবে না আমার তোড়া ছয়ঞি হবে।


 মহাশয়গো কেটা আমাকে শোন কোষ্টার উপরে দাদনি করিয়া টাকা দিবে।

 আমি বুঝি তোর চারি পাঁচ বিঘা শোন ও কোষ্টা প্রস্তুত হইল প্রায়। মহাজনের স্থানে এৎবার আছে টাকা চাহিলে পাইতে পারিস।


 শোন কোষ্টা এখন পর্য্যন্ত তৈয়ার হয় নাই ইহাতে কোন মহাজন আমাকে খাতিরজমা করিয়া টাকা দিবে এখন কি আমার সেকাল আছে।


 কেন। তোর শ্বশুরেরদের খুব যোত্ৰ আছে তাহারদের কাছে টাকা লইলে পাইতে পারিস।

 আহা মহাশয় এ কি বড় মানুষের কুটুম্ব এক জনের যোত্র হইলে দশ জনের তত্ববার্ত্তা করে।

 কেন তোরদের করে না।