পাতা:Vanga Sahitya Parichaya Part 1.djvu/৩৭২

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


২৫০ বঙ্গ-সাহিত্য-পরিচয় । কবি ষষ্ঠাবর। ষষ্ঠবর সেন ও তৎপুত্র গঙ্গাদাস সেন ৩৫০ বৎসর পূৰ্ব্বে জীবিত ছিলেন। ইহারা উভয়েই প্রাচীন বঙ্গের বিখ্যাত কবি। পূৰ্ব্ববঙ্গের ৩০০ বৎসরের প্রাচীন পুথিগুলিতে ইহাদের বহুসংখ্যক কবিতা পাওয়া গিয়াছে। ইহারা রামায়ণ, মনসা-মঙ্গল, মহাভারত প্রভৃতি বহুবিধ গ্রন্থ রচনা করিয়াছেন। (বিশেষ বিবরণ বঙ্গভাষা ও সাহিত্য, তৃতীয় সংস্করণ ৫০৪ পৃষ্ঠা দ্রষ্টব্য )। ইহাদের জন্মভূমি বিক্রমপুর দীনারদি গ্রাম । এখন এই গ্রামের নাম ঝিনারদি। আমার পূৰ্ব্বে সংস্কার ছিল ইহার বৈদ্যজাতীয়, কিন্তু সম্প্রতি একখানি প্রাচীন পুথিতে গঙ্গাদাসের এই রূপ ভণিতা পাইয়াছি। “বিরচিল গঙ্গাদাস বণিক্য তনয়” সুতরাং ইহার বণিক্‌ জাতীয়, খুব সম্ভব সুবর্ণ বণিক্‌ জাতীয় ছিলেন বলিয়া অনুমিত হয়। এখনও ঝিনারদি গ্রামে বহু সংখ্যক সুবর্ণ বণিক্‌ বাস করিতেছেন। ষষ্ঠীবরের উপাধি ছিল ‘গুণরাজ খা । চাদ-সদাগরের পুত্ৰ-বিবাহের চেষ্টা । সোণকাতে (১) জিজ্ঞাসা করিল সদাগর । বিবাহ নি (২) করিয়াছে পুত্ৰ লক্ষ্মীন্ধর ॥ (৩) সোণকাএ বোলে পুত্র বিবাহ নাঞি করে। কেমতে হইব বিহা তুমি নাই ঘরে ॥ সদাগরে বোলে শুভে গো পোহাক রজনী । কালিকা কহিব পুত্র-বধুর কারণী ॥ সূর্য্যের উদয় হৈল হইল বেহান । বাহির মণ্ডপে সাধু করিলেক দেয়ান (৪)। কোতোয়ালে নগরে নগরে কহে বাত । সকল হারায়্যা আইল চম্পকের নাথ ॥ হরিষ বিষাদ হৈল শুনিঞা কত লোক । সৰ্ব্বজন চলি আইল দেখিতে কৌতুক ॥ শ্ৰীধর পণ্ডিত আইল মুবুদ্ধি মনোহর । দলে বলে চতুরঙ্গে মিলিল সকল । (১) সনকারে । (২) কি না। (৩) চাদ সদাগর বানিজ্যের পথ হইতে গৃহে ফিরিয়া আসিয়া স্ত্রী সনকাকে লক্ষ্মীন্ধরের (পুত্রের) বিবাহ হইয়াছে কিনা জিজ্ঞাসা করিতেছেন। (৪) দেয়ান =দরবার = সভা ।