পাতা:Vanga Sahitya Parichaya Part 1.djvu/৭৮২

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


বঙ্গ-সাহিত্য-পরিচয় । শকুন্তলা বোলে মোরে বিধি হৈল বাদী। সৰ্ব্বক্ষণ তোমাতে যে মুঞি অপরাধী ৷ লজ্জা ভয় ছাড়ি আইলুম তোহ্মার নগরে। বেশু বলি নিন্দ করি ত্যাগিলা আহ্মারে ॥ স্ত্রী পুত্র বলি কিছু কৃপা নাহি মনে। অপরাধী কেবা কথা আছে আমি বিনে ॥ অবিচারে যখনে বাঞ্ছিল মোরে বনে । তাহাতে রক্ষিতা মোর না ছিল কোন জনে ॥ যদি জাতি নষ্ট হইত দুৰ্জ্জন হাতএ (১)। তবে মোর কি গতি হইত সে দিনয়ে (২) ॥ এবে সে জানিলুম মুঞি পুরুষের চিত্ত। চুণে পুড়িলে মুখ অন্ন লাগে তিক্ত ॥ তনু দিয়া ভজিলেহ প্রত্যয় নাহি যার। নারী লোকে বোলে ব্যর্থ স্বামী আপনার ॥ স্ত্রীর অন্তগতি নাহি স্বজিল বিধাতা । মৈলেহ অধিক নাহি স্বামীর ব্যগ্রতা ॥ আয়ে রাজা যত দোষ সকল আহ্মার । না যুআএ নিন্দ যত বুলিলা বারে বার ॥ নৃপতি বোলেন তুহ্মি প্রাণের অধিক। নয়নে আনন্দ মোর হওত মাণিক ৷ তোর পুত্রে পুত্ৰী আন্ধি এ তিন ভুবন। চিরদিন প্রীতি মোর রাখিবা অনুক্ষণ ॥ শকুন্তলা বোলে আমি অধীন তোহ্মার। স্বামী বিনা নারীর সংসারে কেবা আর ॥ শকুন্তলা বোলে শুন নিঠুব না বোল পুনঃ প্রাণ হৈতে পতি ভিন্ন নহে। যাইব তোহ্মার সনে কোন দুঃখ নাহি মনে তুমি বিনে কেবা মোর হয়ে ॥ ভাবি চাহ মনে মনে চন্দ্ররশ্মি পান বিনে বৃষ্টি-জলে না জীয়ে চকোর। মীন যেন জল বিনে পঙ্কজে মধু বিহনে পতি বিনে নারীর কঠোর ॥ (১) হাতে। (২) দিনে।