পাতা:Vanga Sahitya Parichaya Part 1.djvu/৮৩৫

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


নন্দরাম দাসের মহাভারত । কাশীরাম দাসের ভ্রাতা গদাধরের পুত্র এই দ্ৰোণ-পৰ্ব্ব রচনা করেন। রচনা-কাল ১৬৬০ খৃঃ । দ্ৰোণ-পৰ্ব্ব । “অশ্বথামা হত ইতি গজঃ” এবং দ্রোণের মৃত্যু। মুনি বলে মহাশয় শুন রাজা জন্মেজয় হেন মতে পড়ে ভগদত্ত । দেখি রাজা দুর্য্যোধন শোকেতে আকুল মন আরোহণ কৈল গজমত্ত ॥ অশ্বথামা-হস্তী নাম সংগ্রামেতে অনুপাম অশ্বথামা-হস্তী । তার তুল্য নাহি গজবর। বর্ণে জিনি জলধর ঈশ দন্ত সমসর দেখিতে বড়ই ভয়ঙ্কর ৷ তাহে আরোহণ করি দুৰ্য্যোধন অধিকারী যথা আছে বীর বৃকোদর। হাতে গদা ঘোরতর দুৰ্য্যোধন নৃপবর ভীম সহ করিতে সমর ॥ দেখি ধাএ বৃকোদর হাতে গদা ভয়ঙ্কর শমন-সমান মহাবীর । মহাক্রোধে অঙ্গ কাপে দশন ধরিয়া চাপে বজবং কঠিন শরীর ॥ গদা যেন কালদও সৈন্ত করে লণ্ড ভণ্ড ভীম ও দুৰ্য্যোধন । এক ঘায় মারে শত শত । অশ্ব হস্তী পড়ে যত লিখতে না পারে এত শত শত চূর্ণ করে রথ। বায়ুবৎ ফিরে মহাবীর। ক্রোধে ভয়ঙ্কর মূৰ্ত্তি যেন মত ভানু দেখি আনন্দিত রাজা যুধিষ্ঠির ।