পাতা:Vanga Sahitya Parichaya Part 1.djvu/৯৩৩

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ভাগবত-রঘুনাথ ভাগবতাচাৰ্য্য—রচনাকাল ১৫১০-১৫১৫ খৃঃ। ৮০৩ জল ফেলি মোরে গোপী গোপালের গায়। যৌবন-চুম্বন-ধন যাচে যত্নরায় ॥ উদ্ধব, যত দুঃখ উঠে মনে । জীয়ন্ত থাকিতে মরা গোবিন্দ-বিহনে ॥ আষাঢ়ে আঙ্গিনা রসে আছিনু শুতিয়া । আমার শিয়রে আসি হাম বিনোদিয়া । আলিঙ্গন দেই মুখে বুলাইয় হাত। উঠিয়া আকুল হৈনু কোথা প্রাণনাথ । উদ্ধব, অনেক যন্ত্রণ । অধিক আশের দোষে এত বিড়ম্বনা ; শ্রাবণে সরস রস বরষা বিপুলে। সরসিজ বিকশিত ষটপদ হিল্লোলে ॥ সুখ বৈভব সব গেল শু্যাম সঙ্গে । স্মঙরি স্মঙরি কান্দি এ ভব-তরঙ্গে ॥ দুঃখী শ্ৰামদাস গায়। চিত্ত দৃঢ়াইলে গোপী পাবে ভাম ৱায়। রঘুনাথের ভাগবত। কৃষ্ণ-প্রেম-তরঙ্গিণী । রঘুনাথ ভাগবতাচাৰ্য্য, মহাপ্রভূর সামসময়িক ব্যক্তি। কৃষ্ণদাস কবিরাজের চৈতন্ত-চরিতামৃত, কবিকর্ণপুরের গৌরগণোদেশ প্রভৃতি পুস্তকে এই অনুবাদের উল্লেখ আছে। সাহিত্য-পরিষৎ এই পুস্তকখানি প্রকাশ করিয়াছেন। শ্ৰীকৃষ্ণের রূপ ও বংশীবাদনের প্রভাব । বাম বাহু ধরি বাম কপোল-মণ্ডলে । ললিত চলিত দ্রুম মুৱলী অধরে | বেণুরন্ধে, বিলোলিত কোমল অঙ্গুলি। যখনে বাজান বেণু শ্ৰীল বনমালী ॥ সিদ্ধ-বধূগণ তার সঙ্গে সিদ্ধগণ। মুরছি পড়য়ে রহে হয়ে অচেতন ॥