সনেট-পঞ্চাশৎ/অপরাহ্ন



অপরাহ্ন

গোলাপ, গোলাপ, শুধু গোলাপের রাশি!
গোলাপের রং ছিল অনন্ত আকাশে,
গোলাপের গন্ধ ছিল ধরাতে বাতাসে,
নারীর অধরে ছিল গোলাপের হাসি॥

রং এবে গেছে জ্বলে’, গন্ধ হ’ল বাসি।
শুখানো পাতার রাশি ওড়ে চারিপাশে,
বসন্ত নিদাঘে পুড়ে ছাই হ’য়ে আসে,
পৃথিবীতে মনে হয় হয়েছি প্রবাসী॥

অলক্ষিতে খসে’ গেছে মায়া-রত্নঠুলি।
এ বিশ্ব মাটির গড়া, দেখি চক্ষু খুলি॥

আশার গোলাপী নেশা গিয়াছে ছুটিয়া,
যে নেত্রে আদর ছিল, হেরি অবহেলা।
যৌবনের স্বর্ণপুরী গিয়াছে টুটিয়া,—
মহাশূন্য মাঝে আজি করি ধূলাখেলা॥