গোলাপ

রূপে গন্ধে মানি তুমি জগতে অতুল,
পূজায় লাগে না কিন্তু, অনাৰ্য্য গোলাপ!
দেমাকে দেবতাসনে করোনা আলাপ,—
ফুলের নবাব তুমি, নবাবের ফুল!

ইরাণের ভগ্নোদ্যানে বসি বুলবুল,
স্মরিয়া স্মরিয়া তোমা করিছে বিলাপ।
তুমি কিন্তু রমণীর কেশের কলাপ
আলো করে’ বসো, কিম্বা কর্ণে হও দুল॥

সোহাগে গলিয়া তুমি হও বা আতর,
গুম্ফাসনে বসে’ কর বেগম কাতর!

বিলাসের অঙ্গ লাগি তুমি হও জল,
নারীর আদুরে ফুল, সৌখীন গোলাপ!
নবাবেরই ভোগ্য তব রূপগুণবল,
নবাবের যোগ্য তুমি হকিমী জোলাপ!