তীর্থরেণু/নীতি চতুষ্টয়

নীতি চতুষ্টয়

সিংহশাবক ক্ষুদ্র হ’লেও মদ-বিমলিন হাতীরে হানে,
শক্তিমানের প্রকৃতি ইহাই; বিক্রম কভু বয়স মানে?

* * * *

স্বর্গ হইতে শিবের জটায় সেথা হ’তে পর্ব্বতে,

পর্ব্বত ছাড়ি ধরণী-পৃষ্ঠে, সাগরে ধরণী হ’তে;
এমনি করিয়া গঙ্গা চলেছে অধোগতি অনিবার,
নষ্টমতির নিপাতের লাগি শত দিকে শত দ্বার।

* * * *

তপ্ত লোহায় সলিল-বিন্দু,-নাম খুঁজে পাওয়া দায়;

পদ্ম-পাতায় সেই পুন রাজে মুকুতার সুষমায়!
স্বাতী হ’তে পড়ি’ শুক্তিতে হয় মুক্তা সে নিরমল!
মন্দ, মাঝারি, ভালো হওয়া,সব সংসর্গেরি ফল।

* * * *

আচারনিষ্ঠে ভণ্ড বলে গগ, ধীরজনে ভীরু, সরলে মুঢ়;

প্রিয়ভাষীজনে ধনহীন গণে, বীরে নির্দ্দয়, তেজীরে রূঢ়!
শান্তস্বভাবে অক্ষম ভাবে, বাগ্মী পুরুষে বাচাল বলে,
হেন কোনো গুণ নাই মানুষের যাহা দুর্জ্জনে দোষেনি ছলে।

ভর্ত্তৃহরি।