তীর্থরেণু/নীরব প্রেম

নীরব প্রেম

পাপিয়ার তান না ফুরাতে, রবি, সহসা যেমন ক’রে
নিষ্প্রভ করি’ দ্যায় রশ্মিতে মন্থর শশধরে,
তেমনি করিয়া, সূর্য্যের মত উজ্জ্বল তব রূপ,
কণ্ঠ আমার করেছে হরণ; গান একেবারে চুপ!

উতলা বাতাস সহসা যেমন দ্রুত পাখাভরে আসি’
জোর ফুঁয়ে ভেঙে ফেলে গো কীচক,—তার সবে-ধন বাঁশী;
তেমনি করিয়া আবেগের ঝড় আমারে করে গো ক্ষীণ,
ভালবাসা মোর অমিত বলিয়া ভালবাসা ভাষাহীন।

নয়ন আমার সে কথা তোমারে জানায়েছে নিশ্চয়;—
কেন যে বাঁশরী নীরব আমার বীণা সে মৌন রয়;
সে কথাটি যদি না পার বুঝিতে বিদায়, বিদায় সাকী,
না-পাওয়া চুমার, না-গাওয়া গানের স্মৃতি লয়ে আমি থাকি।

ওয়াইল্‌ড্‌।