তীর্থরেণু/বাল-বিধবা

বাল-বিধবা

আমার স্বপন,  সুখের স্বপন,
নিমেষে ফুরাল,-এই সে ক্লেশ!
ইন্দ্র ধনুর  ভঙ্গুর তনু
অস্ত রবির কিরণে শেষ।
রিক্ত শাখার  রক্তিম পাতা,
বাতাসে হুতাশে কাঁপিয়া মরি,
নিঠুর জগতে আছি কোনো মতে,
জানিনা কখন পড়িব ঝরি’!
গঙ্গায় ধারা  যতদূর যায়
ওগো দয়াময়! তাহারো পারে
লয়ে যেয়ে এই  সুখ-বঞ্চিত
চির-লাঞ্ছিত ভস্ম ভারে।

ডিয়োজিয়ো।