বিরহী

সংসার হ'তে এবার আমার গালিচা গুটায়ে
তুলিব কাঁধে,
তােমার মুখের মাধুরী নিরখি’ মরে যেতে মাের
পরাণ কাঁদে ;
সেই উল্লাসে আপনা হারাব, হারাব আমার
যা কিছু আছে,
মিছে ভাবনার কাটনা ভাঙিয়া লুটাবে তােমার
পায়ের কাছে।
মােরে আর তুমি খুঁজিয়া পাবে না, পরাণ তখন
দেহে না রবে,
মাের পরাণের ঠাইটুকু জুড়ে তুমি সে আমার
পরাণ হবে।
নিজের ভাবনা দূর হয়ে যাবে, ধুয়ে মুছে যাবে
হৃদয় মম ;
আমারে ভরিয়া তুমি শুধু র’বে—তুমি শুধু র'বে
হে প্রিয়তম !
ধরণীর মণি! স্বরগের সার! আমারে ফেলিয়া
রেখনা একা,
আপনারে আমি ভুলিব, হে সখা, তুমি যদি দাও
যারেক দেখা।

জামি।