তীর্থরেণু/বৎসরান্তে

বৎসরান্তে

সেও তো এমনি এক বিহ্বল শ্রাবণে
নব অনুরাগে ভরি’ উঠেছিল হিয়া!
তব অলকের গন্ধ সন্ধ্যা-সমীরণে
পান আমি ক’রেছিলু, প্রিয়া!
আজিকে মাথার কেশে রচিলে আসন,
দাঁড়ায়ে দেখিব শুধু, গলিবে না মন।

সেও তো এমনি এক শ্রাবণ-দিবসে
মূর্ত্তিমতী দেবী বলি’ পূজেছিনু তোরে,
তুমি যা পবিত্র করি’ দিতে গো পরশে
বুকে তুলে নিছি তা’ আদরে।
আজিকে টুটেছে প্রেম, মন উদাসীন,
যতনে নাহিক ফল, সে যে প্রাণহীন।

লরেন্স্‌ হোপ্‌।