তীর্থরেণু/সুপ্রভাত

সুপ্রভাত

স্বজনী! আমার কাননের ফুল!
তেম্‌নিটি তুমি আছ কি আজো?
ধূলা পায়ে তোরে দেখিতে এসেছি,
এস বাহিরিয়া যেমন আছো।
ভুবন ভ্রমিয়া আজিকে এসেছি,
শোলোক রচেছি, ভালও বেসেছি;—
তবে, সে কাহিনী তোর কাছে কিছু নয়!
(তবু) দুয়ারে যখন এসেছি হঠাৎ,—
দুয়ার খুলিতে হয়;
স্বজনী! সুপ্রভাত।

পদ্মের দিনে দেখেছিনু তোরে,—
হৃদয়-পদ্ম খুলেছি সবে,—

তুমি বলেছিলে “আর কারো প্রেম
চাহিনা, চাহিনা, চাহিনা ভবে!”
ত্বরিতে গিয়ে যে এল দেরী করে,
আঁখি আড়ে তার কি করিলি? ওরে।
সে কথায়, হায়, কাজ কি আমার আর?
(তবু) এই পথে আজ এসেছি,হঠাৎ,
খোলো জাল জালানার!
স্বজনী! সুপ্রভাত!

দে ম্যুসে।