মানসী/হৃদয়ের ধন

হৃদয়ের ধন

কাছে যাই, ধরি হাত, বুকে লই টানি-
তাহার সৌন্দর্য লয়ে আনন্দে মাখিয়া
পূর্ণ করিবারে চাহি মাের দেহখানি,
আঁখিতলে বাহুপাশে কাড়িয়া রাখিয়া।

অধরের হাসি লব করিয়া চুম্বন,
নয়নের দৃষ্টি লব নয়নে আঁকিয়া,
কোমল পরশখানি করিয়া বসন
রাখিব দিবসনিশি সর্বাঙ্গ ঢাকিয়া।

নাই, নাই— কিছু নাই, শুধু অন্বেষণ।
নীলিমা লইতে চাই আকাশ ছাঁকিয়া।
কাছে গেলে রূপ কোথা করে পলায়ন,
দেহ শুধু হাতে আসে— শ্রান্ত করে হিয়া।

প্রভাতে মলিনমুখে ফিরে যাই গেহে—
হৃদয়ের ধন কভু ধরা যায় দেহে!

১৮ অগ্রহায়ণ ১৮৮৭