স্পেনীয় মুসলমান সভ্যতা/নবম অধ্যায়




পোষাক পরিচ্ছদ।

 কর্ডোভার পরে এখানেই পোষাক পরিচ্ছদের পারিপাট্য সাধিত হইয়াছিল । এখানেই আরব ও ফরাসীদিগের পরিচ্ছদের সংমিশ্রণে অধিকতর সুন্দর পরিচ্ছদের প্রচলন হইয়াছিল। পূৰ্ব্বদেশের ন্যায় বৃহৎ পাগড়ীর পরিবর্ত্তে, সুন্দর সুন্দর টুপী ও ক্ষুদ্র আকারের পাগড়ীর প্রচলন হইয়াছিল। স্ত্রীলোকেরা কারুকার্য্য করা ঢিলা পাজাম, এক প্রকার কামিজ ও তাহার উপরে মূল্যবান বডিস পরিধান করিতেন। বাহিরে যাইতে হইলে সরু আস্তিনের কৃষ্ণবর্ণের এক প্রকার চোগা ও টুপী পরিয়া স্ত্রীলোকের বাহির হইতেন। এই বেশে তাহাদিগকে যেমন সুন্দর তেমনি গম্ভীর দেখাইত। স্ত্রীলোকদিগের দস্তুরমত স্বাধীনতা ছিল। মস্‌জিদ, ঈদ্‌গাহ এবং সভা সমিতিতে সৰ্ব্বত্রই স্ত্রীলোকদিগের অবাধ গতি ছিল। স্ত্রীলোকদিগকে সম্মানের চক্ষে দেখা পুরুষদিগের বিশেষ কৰ্ত্তব্য ছিল। মুরিস আরবগণ স্ত্রীলোকদিগের প্রতি সৰ্ব্বদাই উচ্চ ধারণা এবং উচ্চমত পোষণ করিতেন। এজন্য স্পেনেও বোগ্দাদের ন্যায় স্ত্রীজাতি উন্নত চরিত্র ও উন্নত হৃদয় লাভ করিবার সুবিধা পাইয়াছিলেন। এজন্যই স্পেনের সর্বত্রই বহুসংখ্যক বিদূষী দৃঢ়প্রকৃতির চরিত্রবতী মহিলা জন্মগ্রহণ করিয়া বহু সংখ্যক প্রতিভাশালী সন্তানের জন্ম দিতে সমর্থ হইয়াছিলেন। শিক্ষা ও স্বাধীনতা পুরুষের পক্ষে মনুষ্যত্ব লাভের যেমন প্রধানতম উপায়, স্ত্রী জাতির পক্ষেও উহা ঠিক সেইরূপ মনুষ্যত্ব লাভের একমাত্র পথ। এই গভীর সত্য স্পেনীয় মোস্‌লেমগণ সম্পূর্ণ ভাবে উপলব্ধি করিতে পারিয়াছিলেন। হায়! আমাদের দেশের অনেক শিক্ষিত ব্যক্তি এই মহাসত্যের তত্ত্ব বুঝিয়াও নিজেদের দূর্ব্বলতা এবং অদূরদর্শিতা বশতঃ স্ত্রীলোকদিগকে অবরোধে বন্দিনী এবং অজ্ঞান অন্ধকারে নিমজ্জিতা করিয়া সমস্ত সমাজ-শরীরটা পচাইয়া তুলিতেছে! আশ্চর্য্যের বিষয় এই যে, যে ইসলাম ধৰ্ম্ম স্ত্রীলোকদিগের অবরোধপ্রথা আদৌ সমৰ্থন করে না, উহাই এদেশে একটী প্রধান ধৰ্ম্ম-কাৰ্য্য বলিয়া গণিত হইতেছে! স্ত্রীলোকদিগের বন্দী দশা যাহা সভ্যতা ও ধৰ্ম্মের চক্ষে সৰ্ব্বাপেক্ষা ঘৃণিত ও কলঙ্কজনক, তাহাই আমাদের নিকট গৌরবকর ও ধৰ্ম্মজনক বলিয়া বিবেচিত হইতেছে!

 কর্ডোভার ন্যায় গ্রাণাডাতেও স্ত্রীলোকদিগের স্বতন্ত্র চিকিৎসা বিদ্যালয় ও হাসপাতাল ছিল। বহু মহিলা চিকিৎসা বিদ্যায় বিশেষ খ্যাতি লাভ করিয়াছিলেন। ফান্স, ইটালী এবং অষ্ট্ৰীয়া প্রভৃতি খ্ৰীষ্টীয় রাজ্যের রাণী কুমারী এবং সন্ত্রান্ত কুলমহিলাদিগের চিকিৎসার জন্য, মধ্যে মধ্যে স্পেন হইতে নারী চিকিৎসকদিগের আহ্বান হইত। হায়! স্পেন, তোমার সেই গৌরবকাহিনী কে আর স্মরণ কবে ? তুমি মোস্‌লেম গৌরবের মহা সমাধি! তোমার অণু রেণুতে মোস্‌লেম মহিমা বিজড়িত!