প্রধান মেনু খুলুন

উইকিসংকলন β

হিতদীপ/বিদ্যা

< হিতদীপ




বিদ্যা।

বিদ্যার সমান কি ধন ধরায়?
বিদ্যাবলে নর কিবা নাহি পায়?
বিদ্যাবলে হের ভূতল-নিবাসী
গণযে ভবনে বসি তারারাশি।
বিদ্যাবলে ভাবী ভূতের সমান,
বিজ্ঞান বিদ্যার যোষিছে সুমান,—
ভূতল-বিহারী বিহরে গগনে
গগন-বিহারী বিহগের সনে
যায় মাস-পথ দিবসের মাঝে
ধন্য হেন ধন, ভুবনে বিরাজে।
বিদ্যা মানবের রূপ সমধিক
বিদ্যাহীন জনে শত শত ধিক,
অগোপন তবু বিদ্যা-মহাধন,
হরিতে পারে না কভু চোরগণ।
বিদ্যা ভোগ, সুখ, যশোমান যত
সকলি বিপুল বিতরে নিয়ত।
বিদ্যা চারুসখা বিদেশ-গমনে
পরম দেবতা বাঞ্ছিত-সাধনে,
গুরুগণ-গুরু বিদ্যা মহাধন
সভায় সুবাস পরম শোভন,

স্বদেশে বিদেশে রাজার সকাশে,
অথবা, পণ্ডিত মণ্ডলীর বাসে
সকল সময়ে নিখিল অালয়ে
সুখময়ী বিদ্যা সুখদা হৃদয়ে।
কত যে সুখদ বিদ্যা মহাধন,
কেমনে তাহার বলি বিবরণ,
দেখ যবে নর সুত-শোকাতুর,
অথবা, সোদর-বিয়োগ-বিধুর,
কিংবা প্রেমময়ী পতিরতা-সনে
বিয়োগে অসুখী যবে হয় জনে,
অথবা, ললিতা ললনা-রতন
হারায় যখন প্রিয়-পতি-ধন,
তখন তাহার মানস তিমির
নাশিতে কে আনে সুখের মিহির?
তখন তাহার হৃদয়-যাতনা
কে হরে করিয়া করুণা, বল না?
প্রবল পবন সমান-চপল
মনে স্থিরতর কে করে বল?
দেখ হে, তখন কেবল শরণ
সাধু-মনোহর-গ্রন্থের পঠন,
সাধুর সহিত আর আলাপন
সংসার অসার বুঝে যাহে মন।

তাই হেরি সেই ভীষণ সময়
যাতনা হারক হয় এ উভয়—
বিদ্যাধন আর সাধু-সহবাস
যাদের অতুল মহিমা প্রকাশ।
তাই হে সংসার-বিষ তরুবরে,
কেবল যুগল সুধাফল ধরে
এই বাণীবলে জ্ঞানীজন গণে
পুরাকাল হতে এখনো ভুবনে।
আরো হের বদ্যা চারু সহচর
কেমন একাকী জনে সুখকর,
বান্ধব-বিহীন কারা-নিকেতনে
যদি কোন দোষে যায় জ্ঞানীজনে
অথবা, নিয়তি-বিপাক-কারণ
দ্বীপান্তরে যদি প্রেরিত সে জন,
(কেননা বুটিল জটিল ভুবন
অদোষেও করে দোষ-আরোপণ)।
তখন একক রহিতে তথায়
নাহি ঘটে তার কভু ঘোর দায়,
বিদ্যার সহায়ে বিদ্যা-আলোচনে
মানসিক দুঃখ লাঘবে সে জনে,
কিন্তু হেন কলে অজ্ঞান যে জন
বিষম বিষাদে যাপে সে জীবন,

দুখের উপর দুখ রাশি তার
হৃদয়ে দ্বিগুণ করয়ে আঁধার।
তাই বলি বিদ্যা তব সম ধন,
এ ছার ভুবনে হবে কি কখন?
মরি কি তোমার মোহিনী মূয়তি
যে হেরেছে, সেই পেয়েছে পীরিতি,
সেজন তোমার ভুলিতে কখন
পারে না পারে না ধরিয়া জীবন।
হায়রে, এমন চারু শুচি ধন,
নাহি যার পশু-সমান সে জন।
সু-বৃত্ত স-গুণ[১] মুকুতা-তনয়
মুকুট-সুকুলে কিবা শোভাময়।
গুণিজন্‌গণ-গণনে গণিত
নাহি হয় যেই অধম-চরিত,
বন্ধ্যার অধিক জননী তাহার
নিয়ত বহেন ঘোর দুখভার।
সুতহীনা নারী এক দুখ সহে,
কু-সুতে সতত দেহ মন দহে।

কি দুখ তাহার বিদ্যা আছে যার,
স্বগুণে সে পায় বিপদের পার।
সম্পদের কালে সেই মহাজন
বিনয় সুগুণে তোষেন ভুবন।
পরকরে সদা মুখের জীবন
বুধকরে রহে শত শত জন,
এ দুয়ের ভেদ হেন লয় মনে
পূর্ণিমার যথা তামসীর সনে।

 

  1. সুবৃত্ত—মুক্তাপক্ষে—সুগোল, তনয়পক্ষে—সচ্চরিত্র।
    সগুণ—মুক্তাপক্ষে—উজ্জলতাদি গুণযুক্ত,
    তনয়পক্ষে—ভক্তি বিশ্বাস প্রভৃতি গুণবিশিষ্ট।